কলকাতা: দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে আংশিক ভাবে প্রকাশিত তৃণমূলের মন্ত্রিসভার তালিকা৷ আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজভবন থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের কাছে তৃণমূলের ৪৪ জনের মন্ত্রিসভার আংশিক তালিকা পেশ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবারের মন্ত্রিসভায় মোট ১৮ জন নতুন মুখ তুলে আনার কথা জানান তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

নতুন মন্ত্রীদের তালিকায় রয়েছেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, শোভন চট্টোপাধ্যায়, শুভেন্দু অধিকারী৷ তাঁরা ছাড়াও পুরানোদের মধ্যে থাকছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অমিত মিত্র, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, অরূপ বিশ্বাস, অরূপ রায়, ব্রাত্য বসু, শশী পাঁজা, মলয় ঘটক, সাধন পাণ্ডে, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, গৌতম দেব, আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, গিয়াসুদ্দিন মোল্লা, বিনয়কৃষ্ণ বর্মন, শান্তিরাম মাহাত, চন্দ্রনাথ সিং, স্বপন দেবনাথ, সৌমেন মহাপাত্র, মন্টুরাম পাখিরা ও উজ্জ্বল বিশ্বাস৷

এবারের নতুন মন্ত্রিসভায় নতুন মুখের মধ্যে থাকছেন আলিপুরদুয়ার থেকে জেমস কুজুর, হুগলি থেকে তপন দাশগুপ্ত, পশ্চিম মেদিনীপুরের চূড়ামণি মাহাত৷ এছাড়াও রয়েছেন অবনী জোয়ারদার, লক্ষ্মীরতন শুক্লা, আব্দুর রেজ্জাক মোল্লা, ইন্দ্রনীল সেন, শ্যামল সাঁতরা, সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী, বাচ্চু হাঁসদা, অসীমা পাত্র, জাকির হুসেন, সন্ধ্যারানি টুডু ও রবীন্দ্রনাথ ঘোষ৷

এবারের মন্ত্রিসভায় থাকছেন বিনয় বর্মনও৷ পাশাপাশি, বেশ কিছু প্রাক্তন মন্ত্রীর ‘টেবিল’ বদল হতে পারে৷ দফতর বদলের ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে এবারেও একাধিক দফতর থাকতে পারে৷

এদিন রাজভবনে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেন, ‘‘অনেক যোগ্য লোক আমাদের দলে আছে, যতটা পেরেছি সব জেলাকে জায়গা দেওয়ার চেষ্টা করেছি৷’’ মমতা আরও জানান, আগামীকাল শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন লালু প্রসাদ যাদব, নীতীশ কুমার, অরুণ জেটলি ও বাবুল সুপ্রিয়৷ এছাড়া ভিন দেশি অতিথি, ভুটানের প্রধানমন্ত্রীও এসে গিয়েছেন৷ আগামীকাল শুক্রবার এই শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের অঙ্গন সব মানুষের জন্যই খোলা থাকবে বলেও তিনি জানান৷

এবার দেখে নেওয়া যাক, কাদের কাছে কোন সম্ভাব্য দফতর যাচ্ছে…

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় – স্বাস্থ্য, স্বরাষ্ট্র
পার্থ চট্টোপাধ্যায়– শিল্প, ব্যবসা, বিদ্যুৎ
শুভেন্দু অধিকারী– পঞ্চায়েত ও গ্রাম উন্নয়ন
অমিত মিত্র– অর্থ, আবগারি, বস্ত্র
রেজ্জাক মোল্লা – ভূমি ও ভূমি সংস্কার
ব্রাত্য বসু -তথ্য ও সংস্কৃতি
জাভেদ খান– পুর বিষয়ক ও নগর উন্নয়ন, দমকল
সৌমেন মহাপাত্র– পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন
গৌতম দেব– উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন
সাধন পান্ডে –জন স্বাস্থ্য কারিগরি
শশী পাঁজা– সর্ব শিক্ষা ও গ্রন্থাগার
পূর্ণেন্দু বসু – আপৎকালীন ব্যবস্থা, অগ্নি ও শক্তি বিষয়ক , সিভিল ডিফেন্স
মলয় ঘটক –খাদ্য ও সরবরাহ
শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় – আইন
জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক– শ্রম
রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়– সেচ
বিনয় বর্মন– বন
উজ্জ্বল বিশ্বাস–  টেকনোলজি, বায়োটেকনোলজি শিক্ষা
লক্ষ্ণীরতন শুক্লা – ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ
অবনী মোহন জোয়ারদার – শ্রমিক উন্নয়ন, শক্তি
অরূপ রায় – কৃষি বিপণন
সুব্রত মুখোপাধ্যায় –  ক্ষুদ্র শিল্প ও কারিগরি
সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী – সংখ্যালঘু উন্নয়ন, মাদ্রাসা শিক্ষা
স্পিকার পদে যথারীতি দেখা যাবে বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় ও ডেপুটি স্পিকারের পদে সোনালি গুহকে৷