বার্সেলোনা: চোখের জলে বৃহস্পতিবার বার্সেলোনাকে বিদায় জানিয়েছেন ক্লাবের ইতিহাসের তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলস্কোরার লুইস সুয়ারেজ। আর এই ঘটনা আরও একবার নাড়িয়ে দিয়েছে লিওনেল মেসিকে। গত ছ’টি মরশুমে আপফ্রন্টে তাঁর বিশ্বস্ত ছায়াসঙ্গীকে হারিয়ে ক্লাবের প্রতি ফের একবার তিরস্কার ছুঁড়ে দিলেন লিওনেল মেসি।

ঊরুগুয়ে স্ট্রাইকার কাতালোনিয়া ক্লাব ছেড়ে চলে যাওয়ায় ইনস্টাগ্রাম পোস্টের মধ্যে দিয়ে তাঁর প্রতি দুঃখপ্রকাশ করেছেন লিওনেল মেসি। শুধু দুঃখপ্রকাশ করাই নয়। কেন সুয়ারেজকে অ্যাটলেটিকোর হাতে তুলে দিল ক্লাব, ভেবে না পেয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন আর্জেন্তাইন। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিও লিখেছেন, ‘তোমাকে অন্য ক্লাবের জার্সি গায়ে দেখে অবাক হব। আরও বেশি অবাক লাগবে যখন আসন্ন মরশুমে তোমার প্রতিপক্ষ হিসেবে খেলতে নামব।’

মেসি সুয়ারজের জন্য আরও লেখেন, ‘তুমি যে মানের ফুটবলার তাতে তোমার আরও ভালো বিদায় প্রাপ্য ছিল। তুমি দলের জন্য এবং নিজের জন্য এই ক্লাবকে যা দিয়েছো তাতে তুমি ক্লাবের ইতিহাসের একজন গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার সন্দেহ নেই। কিন্তু ওরা তোমাকে প্রাপ্য সম্মানটা দিল না। কিন্তু এটা ঠিক যে এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে কোনও কিছু আমাকে আর অবাক করে না।’

কিন্তু বার্সেলোনা ম্যানেজমেন্টের এই সিদ্ধান্ত অবাক করেছে একজনকে। যিনি কয়েক মরশুম আগে অবধি মেসি-সুয়ারেজের সঙ্গে বার্সেলোনার আপফ্রন্টে সোনা ফলিয়েছেন। সুয়ারেজকে নিয়ে এবং ক্লাবের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে মেসির এই আবেগঘন পোস্টে বার্সেলোনা অনুরাগীদের প্রিয় ‘এমএসএনে’র তৃতীয় সদস্য নেইমার লিখেছেন, ‘ওরা (বার্সেলোনা ক্লাব) যা করছে দেখে আশ্চর্য হচ্ছি।’

উল্লেখ্য, গত মরশুম শেষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্নের কাছে ২-৮ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পর বার্সেলোনায় শুরু হয় পুনর্গঠন প্রক্রিয়া। কিকে সেতিয়েনকে কোচের পদ থেকে সরিয়ে তাঁর জুতোয় পা গলান রোনাল্ড কোম্যান। আর তিনি এসেই বাকি অনেকের সঙ্গে লুইস সুয়ারেজকে বাতিলের খাতায় ফেলে দেন। বুধবার ঊরুগুয়ে স্ট্রাইকারের অ্যাটলেটিকোয় যোগদানের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয় বার্সেলোনার তরফ থেকে। বৃহস্পতিবার কাতালান ক্লাবে শেষবারের মতো সাংবাদিক সম্মেলন করার পর নতুন ক্লাবে যোগ দিতে মাদ্রিদ রওনা হন সুয়ারেজ।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলনের শুরুতে চোখের জল বাঁধ মানেনি সুয়ারেজের। বার্সার ‘নম্বর নাইন’ বলেন, ‘আমি মাথা উঁচু করেই ক্লাব ছাড়ছি। বিভিন্ন সময় আমার সম্বন্ধে এমন কিছু কথা বলা হয়েছে যেগুলো সত্যি নয়।’ তিনি আরও বলেন, ‘বার্সেলোনায় এসে আমি বেশ কিছু মহান ফুটবলারের সান্নিধ্য পেয়েছি। আমি যেখানেই যাই না কেন ঠান্ডা মাথায় ফুটবল খেলার চেষ্টা করব।’

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।