লন্ডন: এক নয়, দুই নয়, চার নয়। একেবারে গুনে গুনে বিপক্ষের জালে ন’বার বল জড়াল লেস্টার সিটি। শুক্রবার প্রিমিয়র লিগে সাউদাম্পটনকে ৯-০ গোলে হারিয়ে রেকর্ডবুকে নাম তুলে ফেলল ব্রেন্ডন রজার্সের ছেলেরা। প্রিমিয়র লিগে সর্বাধিক ব্যবধানে জয়ের নিরিখে এদিন ‘৯৫ ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের রেকর্ডে ভাগ বসাল তাঁরা। একইসঙ্গে অ্যাওয়ে ম্যাচে সর্বাধিক ব্যবধানে জয়ের নিরিখে নয়া রেকর্ড সেট করল ২০১৫-১৬ প্রিমিয়র লিগ চ্যাম্পিয়নরা।

লেস্টারের বিরাট জয়ে এদিন জোড়া হ্যাটট্রিক করলেন অ্যায়োজ পেরেজ ও অধিনায়ক জেমি ভার্ডি। পাশাপাশি এই জয়ের ফলে লিগ টেবিলে দ্বিতীয়স্থানে উঠে এল ‘ফক্স’রা। হেলিপ্যাড দুর্ঘটনায় ক্লাবের প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা মালিক ভিচাই শ্রীবদ্ধনাপ্রভার মর্মান্তিক মৃত্যুর বর্ষপূর্তির ঠিক দু’দিন আগে যেন জ্বলে উঠল জেমি ভার্ডি অ্যান্ড কোং। ১০ মিনিটে বেন চিলওয়েলের দুরন্ত ভলিতে এদিন গোলের লকগেট খোলে লেস্টার। অ্যায়োজ পেরেজের দুরন্ত শট বিপক্ষ গোলরক্ষকের দস্তানায় প্রতিহত হলে ফিরতি বল জালে রাখেন চিলওয়েল।

আরও পড়ুন: জ্বলে উঠলেন কৃষ্ণা-উইলিয়ামস, হায়দরাবাদকে ৫ গোল এটিকে’র

১২ মিনিটে লাল কার্ড দেখে রায়ান বারট্র্যান্ড মাঠ ছাড়তেই ম্যাচের বাকি সময়টা নিউমেরিক্যাল সুপ্রিমকে দারুণভাবে কাজে লাগায় লেস্টার। সাত মিনিট বাদে গোলের খাতায় নাম তোলেন ইউরি টিয়েলমানস। ১৯ মিনিটে দলের হয়ে তৃতীয় ও ব্যক্তিগত প্রথম গোলটি করেন পেরেজ। ৩৯ মিনিটে পেরেজ ও ৪৫ মিনিটে অধিনায়ক ভার্ডির গোলে প্রথমার্ধেই ৫ গোলে লিড নেয় লেস্টার। গতির সঙ্গে ফক্সদের ধ্বংসাত্মক ফুটবল সাউদাম্পটন তিনকাঠির নীচে দস্তানা হাতে নীরব দর্শক বানিয়ে রাখে অ্যাঙ্গাস গুনকে। লজ্জার হারের ভ্রুকুটি গ্রাস করে সাউদাম্পটনকে।

আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্ট পদে সৌরভ আসলে ভারতীয় ক্রিকেটেরই জয়: শাস্ত্রী

দ্বিতীয়ার্ধের আগে দলের ছেলেদের প্রতি কোচ রজার্সের বার্তা ছিল, ‘মনে কর খেলার ফল এখনও গোলশূন্য।’ ম্যানেজারের এই পেপটকেই দ্বিতীয়ার্ধে সমান উজ্জীবিত ফুটবল খেলে লেস্টার সিটি ফুটবলাররা। ৫৭ মিনিটে নিজের তৃতীয় গোল করে হ্যাটট্রিক সম্পন্ন করেন পেরেজ। এরপর ৫৮ মিনিটে দ্বিতীয় গোল ও শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি থেকে হ্যাটট্রিক সম্পূর্ণ করার পাশাপাশি সর্বকালীন রেকর্ড ছোঁয়ার গোলটি করেন ভার্ডি। মাঝে ৮৫ মিনিটে জেমস ম্যাডিনসনের নিখুঁত ফ্রিকিকও সাউদাম্পটনের হতাশ বাড়িয়ে তিনকাঠিতে প্রবেশ করে।