মোলবোর্ন: কেরিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালের স্মৃতিবিজড়িত মেলবোর্ন পার্ককে আবেগঘন বিদায় জানালেন লিয়েন্ডার পেজ৷ বছরের শুরুতেই ৪৬ বছর বয়সি লিয়েন্ডার জানিয়েছিলেন, পেশাদার টেনিসে এটাই তাঁর শেষ মরশুম৷ বেছে বেছে কয়েকটা টুর্নামেন্ট খেলে তিনি চিরতরে তুলে রাখবেন ব়্যাকেট৷ সেই মতো অস্ট্রেলিয়ান চলতি ওপেনে অভিযান শেষ হতেই নিশ্চিত হয়ে যায় যে, মোলবোর্নের কোর্টে তাঁর লড়াই শেষ হল চিরতরে৷

মেনস ডাবলস খেলেননি৷ ওয়াইল্ড কার্ড এন্ট্রি হিসেবে লাটভিয়ার জেলেনা ওস্তাপেঙ্কোরে সঙ্গে নিয়ে নেমেছিলেন মিক্সড ডাবলসে৷ প্রথম রাউন্ডে জিতে প্রি-কোয়ার্টারে জায়গা করে নিলেও শেষ ষোলোয় থেমে গেল লি-ওস্তাপেঙ্কোর লড়াই৷ ব্রিটেনের জেমি মারে ও আমেরিকার বেথানি মাটেক স্যান্ডস জুিটর কাছে স্ট্রেট সেটে হেরে যান লিয়েন্ডাররা৷১ ঘণ্টা ৭ মিনিট কোর্টে কাটিয়ে লি-ওস্তাপেঙ্কো হার মানেন ২-৬, ৫-৭ সেটে৷

আরও পড়ুন: শতরান হাতছাড়া অনুষ্টুপের, দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলা

প্রথম সেটে লিয়েন্ডারদের বেশ কয়েকটা ভুলের সুযোগ নিয়ে মারে-মাটেক আধিপত্য দেখান৷ তবে দ্বিতীয় সেটে একসময় প্রতিপক্ষের সার্ভিস ভেঙে এগিয়ে যায় লি-ওস্তাপেঙ্কো৷ যদিও লিড ধরে রাখতে পারেননি তাঁরা৷ ৫-৪ গেমে এগিয়ে থাকা অবস্থায় নিজেদের সার্ভিস ধরে রাখলেই যেখানে সেট জিততে পারতেন ইন্দো-লাটভিয়ান জুটি, সেখানে প্রতিপক্ষকে পর পর ব্রেক পয়েন্ট উপহার দিয়ে সেট তথা ম্যাচ হেরে বসেন লিয়েন্ডাররা৷

১৯৯৯ সালে মহেশ ভূপতিকে নিয়ে অস্ট্রলিয়ান ওপেনের ফাইনালে উঠেছিলেন লিয়েন্ডার৷ সেটিই ছিল কোনও মেজর টুর্নামেন্ট লিয়েন্ডারের খেতাবি ম্যাচ৷ যদিও ভারতীয় জুটিকে ফাইনালে হারতে হয়েছিল সেবার৷ সব মিলিয়ে ডাবলসে চারবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে ওঠেন লিয়েন্ডার৷ ২০১২ সালে একবারই তিনি ডাবলস চ্যাম্পিয়ন হন৷ ১৯৯৯, ২০০৬ ও ২০১১ সালে রানার্স হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় লিয়েন্ডারকে৷

আরও পড়ুন: টেনিসের খাসতালুকে দাঁড়িয়ে নোবেলজয়ীর মুখে ৭৫-এর শিল্ড ফাইনাল

যদিও লিয়েন্ডার প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হন ২০০৩ সালে৷ মার্টিনা নাভ্রাতিলোভাকে সঙ্গে নিয়ে সেবার মিক্সড ডাবলস চ্যাম্পিয়ন হন তিনি৷ মোট পাঁচবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের মিক্সড ডাবলসের ফাইনালে ওঠেন লিয়েন্ডার৷ চ্যাম্পিয়ন হন তিনবার৷ ২০০৩ ছাড়াও ২০১০ ও ২০১৫ সালে যথাক্রমে কারা ব্ল্যাক ও মার্টিনা হিঙ্গিসের সঙ্গে জুটি বেঁধে অজি ওপেনের মিক্সড ডাবলস জেতেন ভারতীয় তারকা৷ বর্ণোজ্জ্বল সেই অধ্যায়ে যবনিকা পড়ল মঙ্গলবার৷