হাওড়া: ক্রিকেটে আগেই থাবা বসিয়েছে করোনা ভাইরাস। আন্তর্জাতিক ম্যাচ থেকে শুরু করে আইপিএল সমস্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় তার অনূর্ধ্ব ১৫ টুর্নামেন্ট আপাতত স্থগিত রেখেছে। একই সিদ্ধান্ত নিলেন লক্ষীরতন শুক্লাও। রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীও একই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বিশ্বজুড়ে মারণ করোনা ভাইরাস সংক্রমণের জেরে এবার ভাইরাস-সতর্কতায় ১৫ দিনের জন্য বন্ধ রাখা হচ্ছে ক্রিকেটার মন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লার স্পোর্টস অ্যাকাডেমিও। হাওড়ার ইছাপুর ডুমুরজলায় এলআরএস বাংলা স্পোর্টস অ্যাকাডেমির ক্ষুদে ক্রিকেটারদের জন্য করোনা সতর্কতা হিসেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শনিবার সকালে ওই অ্যাকাডেমির ক্ষুদে ক্রিকেটারদের হাতে করোনা সচেতনতায় প্রতীকী হিসাবে মাস্ক তুলে দেওয়া হয়। লক্ষ্মীরতন সহ এখানকার ক্রিকেট প্রশিক্ষকরা তাদের হাতে ওই মাস্ক তুলে দেন। অ্যাকাডেমির ডিরেক্টর হিসেবে মন্ত্রী লক্ষ্মীরতন ক্ষুদে ক্রিকেটারদের পরামর্শ দেন করোনা মোকাবিলায় কি কি সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা, সাবান দিয়ে হাত ধোওয়া, মাস্ক ব্যবহার করা, ভীড় এড়িয়ে চলা এসব পরামর্শ দেওয়া হয়।

অ্যাকাডেমির অন্যতম উপদেষ্টা শমিত কুমার ঘোষ ওরফে হোল্ডার বলেন, ‘মারণ ভাইরাসের সতর্কতা হিসাবে আইপিএল পিছোনো হয়েছে। স্থগিত রাখা হয়েছে ডার্বি ম্যাচ। আমাদের এখানেও আগামী ১৫ দিন স্পোর্টস অ্যাকাডেমি বন্ধ রাখা হচ্ছে। সকলে যাতে সুস্থ থাকে তারজন্যই এই পরিকল্পনা।’

লক্ষ্মীরতন শুক্লা বলেন, ‘করোনা নিয়ে অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই। প্যানিক করার কারণ নেই। আমাদের প্রত্যেককে সচেতন থাকা উচিত। ‘হু’ একে মহামারী ঘোষণা করেছে। যাতে এই মারণ ভাইরাস না ছড়িয়ে পড়ে তারজন্য আমাদের প্রত্যেকের পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা উচিত। নিজের খেয়াল রাখা উচিত। অন্যের খেয়াল রাখা উচিত। আমরা অভিভাবক হিসাবে ছোটদের খেয়াল রাখব। এই কারণেই হাওড়ার ডুমুরজলায় এই স্পোর্টস অ্যাকাডেমি ১৫ দিনের জন্য বন্ধ রাখছি।’ তিনি আরও বলেন , ‘এখানে প্রায় ১,৮০০ জন প্রশিক্ষণ নেয়। তাদের সতর্কতা হিসাবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। করোনার জেরে স্কুল, কলেজ, শপিং মল, হোটেলও সতর্কতা হিসাবে ধীরে ধীরে বন্ধ হচ্ছে। আইপিএল পিছোচ্ছে। আমরাও তাই ১৫ দিনের জন্য এল আর এস বাংলা স্পোর্টস অ্যাকাডেমি বন্ধ রাখছি।’