স্টাফ রিপোর্টার, মুর্শিদাবাদ: রাজ্যের অলিতে গলিতে এখনও পুজোর গন্ধ মেলায়নি৷ এখনও ফাঁকা পড়ে আছে প্যাণ্ডেল৷ বাঁশের কাঠামো খোলা হয়নি অনেক জায়গায়৷ এখনও বিজয়ার শুভেচ্ছা বিনিময় চলছে৷ তবে তারই মাঝে প্রস্তুতি শুরু লক্ষ্মী পুজোর৷

তবে এখানে কিন্তু সারা রাজ্যের সেই চেনা ছবি নেই৷ কারণ এখানে কোনও দুর্গা পুজো হয় না৷ তবে উৎসবের আনন্দে পিছিয়ে নেই মুর্শিদাবাদের কান্দি ব্লকের মনোহরপুর গ্রাম৷ কান্দি ব্লকের আন্দুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে মনোহরপুর গ্রামে প্রায় বারোশো লোকের বসবাস।

কৃষি প্রধান এলাকা বলে পরিচিত এই গ্রামে কোনও দুর্গাপুজো হয় না৷ কিন্তু এই গোটা গ্রামই এই কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোতে মেতে ওঠে৷ লক্ষ্মী পুজোকে কেন্দ্র করে চারদিন ধরে উৎসব চলে গ্রাম জুড়ে৷ গ্রামের প্রতি স্তরের মানুষ এই উৎসবে সামিল হন জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে৷

এখন শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে মনোহরপুর গ্রামে৷ শুধু পুজোই নয়, এই গ্রামে পুজো উপলক্ষে মেলা এবং যাত্রাগানের আসর বসে৷ চলে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান৷ পাশাপাশি ভাসানে আতসবাজী প্রদর্শনী করা হয়। এই গ্রামে প্রায় দুশো বছর ধরে হয়ে আসছে লক্ষ্মী পুজো৷ এর বিশেষত্ব হল লক্ষ্মী ও নারায়ণকে এখানে একসাথে পুজো করা হয়৷

আরও পড়ুন : ফলনের আকাল, বাঁকুড়ার গ্রামে প্রায় বন্ধ লক্ষ্মী পুজো

চারদিন ধরে চলা উৎসব এখানে দুর্গাপুজোর আনন্দের সামিল৷ কারণ এই গ্রামে দুর্গা পুজো না হওয়ার কষ্ট গ্রামবাসীরা ভুলে যান, লক্ষ্মী পুজোর আনন্দে৷ মূলত চাষের ফলন ভালো হওয়ার জন্য এই লক্ষ্মীপুজো চালু করা হয়৷ সেই থেকে আজও ঐতিহ্য পরম্পরা মধ্যে দিয়ে উৎসব পালন করা হয়ে আসছে মনোহরপুর গ্রামে।