দেরাদুন: সাধারণ মানুষের জন্য বন্ধ হয়ে গেল হৃষীকেশের বিখ্যাত লছমন ঝুলা। ঋষিকেশের একটি জনপ্রিয় এবং দর্শনীয় স্থান এটি। পর্যটক বা তীর্থযাত্রীরা হৃষীকেশ এলেই যান এই ঝুলন্ত সেতুতে। গঙ্গার উপর দিয়ে রয়েছে সেই সেতু।

শুক্রবার হৃষীকেশের প্রশাসনের তরফ থেকে সেতু বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আসলে সেতুর খারাপ অবস্থার জন্য আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে। তাই যতদিন পর্যন্ত না ব্রিজ নতুন করে খোলার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত সাধারণ মানুষ এই সেতুতে চলাফেরা করতে পারবেন না।
পূর্ত দফতরের তরফ থেকে একটি সার্ভে করা হয়েছিল। সেই সার্ভেতে দেখা যায়, দীর্ঘদিন ধরে মেরামতের কাজ বাকি রয়ে গিয়েছে। তাই সেতুর অনেক অংশই বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে। ফলে যে কোনও ধরনের খারাপ ঘটনা ঘটতে পারে।

এছাড়া দিনের পর দিন এই সেতুতে যাতায়াতের পরিমাণ বাড়ছে, তাই বিপদও বেড়েই চলেছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, যত দ্রুত সম্ভব এই সেতু বন্ধ করতে হবে। এমনকি একদিকে ঝুলে যেতেও শুরু করেছিল সেতুটি।তাই দ্রুত বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তপোবন ও তেহরির মধ্যে সংযোগ স্থাপন করে সেই সেতু। গঙ্গার পশ্চিম তীরে অবস্থিত এই ব্রিজ। কিছুদিনের মধ্যে কাওয়াদ যাত্রা অনুষ্ঠিত হবে, তাই তার আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সেতুটি, কারণ ওইসময় খুব ভিড় হয়।

১৯২৩-এ খোলা হয় এই সেতু। তারপর থেকেই ক্রমশ জনপ্রিয়তা বাড়ে লছমনঝুলার।