স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া: হাওড়া ব্রিজের উপর থেকে মাঝ গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়েছিলেন এক মহিলা৷ কিন্তু তাঁকে উদ্ধার করে প্রাণে বাঁচালেন হুগলি নদী জলপথ পরিবহণ সংস্থার লঞ্চের এক কর্মী৷

ওই মহিলা বাস থেকে নেমে ব্রিজ ধরে হাওড়ার দিকে হেঁটে যাচ্ছিলেন৷ হঠাৎই তিনি ব্রিজ থেকে গঙ্গায় ঝাঁপ দিতে যান৷ সে সময় কলকাতা পুলিশের এক কর্মী তাঁকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে ওই মহিলা তাঁকে ধাক্কা মেরে নিজে গঙ্গায় ঝাঁপ দেন৷ মানসিক অবসাদ ও শারীরিক অসুস্থতার কারণেই তিনি হাওড়া ব্রিজ থেকে গঙ্গায় ঝাপ দেন বলে মনে করা হচ্ছে৷

জানা গিয়েছে, দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরের বাসিন্দা দিব্যা কাটারিয়ার (৩৪) আদতে উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা৷ কয়েক মাস যাবৎ তিনি শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন৷ প্রায় দেড় মাস আগে তাঁর গলব্লাডারের অস্ত্রোপচার হয়৷ কিন্তু এরপরও তিনি সুস্থ হননি৷ এছাড়াও বিভিন্ন কারণে তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন৷

সোমবার দুপুরে ঘটনার সময়ে বাগবাজার থেকে হাওড়াগামী হুগলী নদী জলপথের লঞ্চের কর্মী প্রশান্ত ঘোষের চোখে পড়ে বিষয়টি৷ ওই লঞ্চ কর্মী লঞ্চটিকে দাঁড় করিয়ে লাইফ জ্যাকেট পরে জলে ঝাঁপ দিয়ে উদ্ধার করেন দিব্যাদেবীকে৷ এরপর প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য তাঁকে কলকাতার একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে নর্থ-পোর্ট থানার পুলিশ৷