কলকাতাঃ  সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের সপ্তম তথা শেষ দফায় রাজ্যের নয়টি লোকসভা কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ। বারাসত, বসিরহাট, জয়নগর, যাদবপুর, দমদম, ডায়মন্ডহারবার, কলকাতা উত্তর এবং দক্ষিণ এবং মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রে ভোট হবে। শেষ দফায় রাজ্যের নয়টি আসনে হেভিওয়েট প্রার্থীরা হলেন- কাকলি, অভিষেক, বিকাশ, সুদীপ, চৌধুরী মোহন জাটুয়া, সৌগত, সুভাষ নস্কর, রাহুল সিনহা

কাকলি ঘোষ দস্তিদার পেশাগত দিক থেকে ডাক্তার৷ ২০০৯ সাল থেকে তিনি বারাসত লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ৷ তবে তাঁর আগে দুবার যথাক্রমে ডায়মন্ডহারবার এবং হাওড়া লোকসভা কেন্দ্র থেকে দাঁড়িয়ে হারেন৷ নারদা কেলেঙ্কারিকে তাঁর নাম জড়িয়েছিল৷ পাকস্ট্রিট ধর্ষণকাণ্ডে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন এই সাংসদ৷ এবারেও বারাসত কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী৷

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো৷ ডায়মন্ডহারবার লোকসভা কেন্দ্রে বিদায়ী সাংসদ তিনি৷ এবারও তিনি ওই কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী৷ সম্প্রতি তাঁর স্ত্রী সোনা নিয়ে বিদেশ থেকে আসার সময় বিমানবন্দরে ধরা পড়েছিলেন বলে অভিযোগ ৷

যাদবপুর কেন্দ্র থেকে বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য এবারের বামফ্রন্ট প্রার্থী৷ কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তিনি৷ বিকাশ ভট্টচার্য এক সময়ে ছিলেন ত্রিপুরার অ্যাডভোকেট জেনারেল৷ বেশ কিছু বিখ্যাত মামলা লড়েছেন তিনি৷ যেগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য- সারদা এবং নারদা স্টিং অপারেশন মামলা৷

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবারে কলকাতা উত্তর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী৷ এই বর্ষীয়ান নেতা বহু বছর ধরে কংগ্রেস অথবা তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক অথবা সাংসদ ছিলেন৷ অবশ্য বিতর্ক তাঁকে নিয়েও রয়েছে৷ রোজভ্যালি কেলেঙ্কারি তদন্তের সময় সহযোগিতা না করায় সিবিআই তাঁকে ২০১৭ সালে সিবিআই তাঁকে গ্রেফতার করেছিল ৷

চৌধুরী মোহন জাটুয়া এবার মধুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী৷ আবার তিনিই হলেন ওই কেন্দ্রের বিদায়ী প্রার্থী৷ রাজ্যের প্রাক্তন ডিআইজি ছিলেন জাটুয়া৷ একসময় মনমোহন সিংএর মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন৷

সৌগত রায় এবার দমদম কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী৷ প্রেসিডেন্সি কলেজের পদার্থবিজ্ঞানের ছাত্র পরবর্তীকালে আশুতোষ কলেজের অধ্যাপক হন৷ এই বর্ষীয়ান নেতা কংগ্রেস এবং তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন বিধায়ক ও সাংসদ ছিলেন এই বর্ষীয়ান নেতা৷ হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও ৷ আবার নারদা কেলেঙ্কারিকে তাঁর নাম জড়িয়েছিল তাঁর৷

সুভাষ নস্কর হলেন এবার জয়নগর কেন্দ্রে বাম প্রার্থী৷ আরএসপি এই নেতা এক সময় বামফ্রন্টের সেচমন্ত্রী ছিলেন৷ বাসন্তী বিধানসভা কেন্দ্রে থেকে বেশ কয়েকবার তিনি বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন৷

রাহুল সিনহা এবার কলকাতা উত্তর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী৷ রাজ্য বিজেপি-র প্রাক্তন সভাপতি তিনি৷ বিজেপি প্রার্থী হিসেবে ২০১৪ সালে তিনি ওই কেন্দ্র থেকে দাঁড়িয়ে হেরেছিলেন এবং ২০১৬ সাল জোড়াসাঁকো বিধানসভা কেন্দ্র থেকে দাঁড়িয়ে হেরেছিলেন৷