নয়াদিল্লিঃ  নতুন করে ফের উত্তেজনা দিল্লিতে। দিল্লি গেটের সামনে এবং জামা মসজিদ এলাকায় ব্যাপক বিক্ষোভ আন্দোলনকারীদের। পুলিশের অনুমতি ছাড়াই এই সমস্ত অঞ্চলে জমায়েত বিক্ষোভকারীদের। কয়েক হাজার জমায়েত। ব্যাপক উত্তেজনা ঘটনাস্থলে। এরপরেই পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর ভাবে অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে।

একের পর এক গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আন্দোলনকারীদের লক্ষ্য করে জল কামান। ব্যাপক লাঠিচার্জ পুলিশের। পালটা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট বৃষ্টি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ঘিরে বৃহস্পতিবারই দিল্লি থেকে লখনউতে অশান্তি ছড়িয়ে পড়েছিল। অশান্তির আবহে সতর্কতা হিসাবে বন্ধ করে দেওয়া হয় জামিয়া মিলিয়া এবং ওখলা বিহার শাহিন বাগ মেট্রো স্টেশন। এরপর শুক্রবার বেলা গড়াতেই আবার উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে দিল্লির রাজপথে। জামা মসজিদে নমাজ শেষেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কয়েক হাজার আন্দোলনকারী।

সূত্রের খবর, শুক্রবারে জুম্মার নমাজের প্রার্থনা শেষেই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় সুর চড়ান জামা মসজিদে আসা স্থানীয় মানুষরা। এরপর মিছিল করতে থাকেন তারা। কিন্তু সন্ধ্যা নামতেই অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি হয়ে ওঠে দিল্লি। দিল্লি পুলিশ অফিসের সামনে এগোতে থাকে মিছিল। ১৪৪ ধারা জারি ছিল। আর তা অমান্য করেই এগোতে থাকে আন্দোলনকারীরা। ব্যারিকেড ভেঙে এগোতে থাকে মিছিল। এরপরেই অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে পরিস্থিতি।

একের পর এক গাড়িতে আগুন জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আন্দোলনকারীদের উপর ব্যাপক লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I