শ্রীনগর: শনিবারের পর থেকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে উপত্যকা। টেলিফোন ও ইন্টারনেট ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা অনেকটাই শিথিল করা হল শনিবার থেকে। দুপুর থেকেই জম্মুর পাঁচ জেলায় চালু করে দেওয়া হয়েছে ২জি ইন্টারনেট পরিষেবা।

এছাড়াও এদিন থেকেই জন্মুর ১৭টি জেলায় আবার চালু করা হল টেলিফোন এক্সচেঞ্জও। সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে যে, জন্মুর রিয়াশি, সাম্বা,কাথু এবং উধমপুর জেলাগুলিতে ১২ দিনের মাথাই পুনরায় চালু হল টেলিফোন, ইন্টারনেট সহ অন্যান্য জরুরি পরিষেবা গুলি।

৩৭০ ধারা উঠিয়ে নেওয়ার ফলে গত ৫ তারিখ থেকে জন্মুর যে ১৭টি জেলাই সমস্থ ধরণের পরিষেবা গুলি বন্ধ ছিলও তা শনিবার দুপুর ১২ টার পর থেকে তুলে নেওয়া হয়, সাধারনত যে সব এলাকাতে এদিন থেকে আবার প্রথম দফায় ইন্টারনেট চালু করা হল সেগুলি হল জন্মুর শ্রীনগর বিমানবন্দর, ক্যান্টনমেন্ট এলাকা, শ্রীনগর এলাকায়। আপাতত ১৭টি টেলিফোন লাইন চালু করা হলেও বাকি পরিষেবা গুলি খুব শীঘ্রই চালু করে দেওয়া হবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে যাতে আজ থেকেই কাশ্মীরবাসী পুনরাই স্বাভাবিক জীবনযাপনে ফিরে যেতে পারে। দক্ষিণ কাশ্মীরের কাজিগুন্দ এবং পহেলগাঁওতে ইন্টারনেট পরিষেবা স্বাভাবিক করা হছে।

শুক্রবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে কাশ্মীরের মুখ্যসচিব জানান বিভিআর সুব্রামনিয়াম জানান সরকারি নির্দেশ অনুসারে গত ৫ তারিখ থেকে প্রায় ১২দিন বন্ধ ছিলও জম্মুর সমস্ত ইন্টারনেট পরিষেবা সহ ইস্কুল কলেজ, অফিস কাছারি সরকারি কার্যালয়গুলি। বর্তমানে উপত্যাকার পরিস্থিতি বেশ ঠাণ্ডা হওয়ায় শনিবার থেকেই ফের চালু করে দেওয়া হবে সব ধরণের পরিষেবা এবং যেগুলি এখনও বন্ধ রয়েছে তা রবিবারের মধ্যেই চালু হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন।