বেঙ্গালুরুঃ নামার আগেই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল চন্দ্রযানের সঙ্গে ইসরোর৷ অবতরণের ২,১ কিলোমিটার আগেই এই ঘটনা ঘটেছে৷ এতেই উদ্বিগ্ন বিজ্ঞানীরা৷

ঐতিহাসিক অবতরণ দেখতে ইসরো কন্ট্রোল রুমে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি পরে জানান, দেশ আপনাদের পাশে রয়েছে৷ এই প্রচেষ্টা বিজ্ঞানের অগ্রগতির জন্যই৷ তারপরেই আরও হতাশা ছড়িয়ে পড়ে৷

প্রধানমন্ত্রী তাঁর তরফে বিজ্ঞানীদের জানান,  দেশ আপনাদের জন্য় গর্বিত৷ জীবনে ওঠা পড়া লেগেই থাকে৷ ভেঙে পড়ার কিছু নেই৷ তার পরেই বিজ্ঞানীদের সঙ্গে সৌজন্য় সাক্ষাত করে তিনি বেরিয়ে যান৷

ইসরো জানাচ্ছে, চন্দ্রযানের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ প্রযুক্তিগত কারণ অনুষন্ধান চলছে৷ সব কিছু ঠিক থাকলে চাঁদের দক্ষিণ মেরুর কাছাকাছি অবতরণ করত চন্দ্রায়ন ২। চাঁদের এই এলাকায় এখনও পর্যন্ত কেউ পৌঁছতে পারেনি।

ইসরো জানাচ্চে, চাঁদে নামার জন্য় ল্য়ান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে৷ রাত ১.৫২ মিনিট ৫৪ সেকেন্ডে অবতরণের সময় নির্দিষ্ট ছিল৷ ঠিক তার আগেই সংকেত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় চন্দ্রযান ল্যান্ডার বিক্রমের৷

মহাকাশ বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ল্যান্ডার বিক্রম এবং রোভার প্রজ্ঞানের আয়ুষ্কাল ১৪ দিন। ইসরো জানিয়েছে, চাঁদের দক্ষিণ মেরু অঞ্চলে কয়েক বিলিয়ন বছর সূর্যালোক ঢোকেনি৷  সেখানে জলের সঞ্চয় রয়েছে৷