স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষকের চোদ্দ কাঠা জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ জমি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে। গাজোল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের। ফেরার অভিযুক্তরা। মালদার গাজলের করলাভিটা এলাকার ঘটনা। স্থানীয় প্রশাসনকে বারবার জানিও কোনো সুরাহা না হয় এদিন তীর-ধনুক নিয়ে নিজেরাই জমির দখল নিলেন শিক্ষক।

জানা গিয়েছে ওই শিক্ষকের নাম সুবল চন্দ্র দাস। তিনি দোঁয়াশ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন৷ ২০০৮ সালে অবসর নেন তিনি৷ তিনি জানান ১৯৮৫ সালে চোদ্দ কাঠা জায়গা সরকারি নিয়ম মেনে কিনেছিলেন। সেই জায়গা দীর্ঘদিন পড়ে রয়েছে।

সম্প্রতি তাঁর কাছে খবর যায় খাজোল এলাকার জমি মাফিয়া রঞ্জিত সরকার, আব্দুল হাকিম সহ বেশ কয়েকজন সেই জমির ওপর জবলদখল করেছে৷ ঘটনার খবর পেয়ে ওই জায়গা বেড়া দিয়ে ঘিরে আসলেও লাভ হয়নি৷ উলটে মেলে প্রাণনাশের হুমকি৷ এরপর থেকেই আতঙ্কে দিন কাটান ওই শিক্ষক৷

অভিযোগ বারবার স্থানীয় প্রশাসনকে জানালেও কোনও লাভ হয়নি৷ রবিবার তাই বাধ্য হয়ে তীর ধনুক আদিবাসীদের সহযোগিতায় ওই জায়গার দখল নেন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। যদিও গোটা বিষয়টি নিয়ে গাজল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি রিনা পারভীন বলেন, এই ধরনের কোন অভিযোগ তাঁর কাছে আসেনি৷ যদি আসে তাহলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা