লাহোর: অবশেষে লাহোর হাইকোর্টের রায়ে সাময়িক স্বস্তি মিলল পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধান মন্ত্রী নওয়াজ শরিফের। পাকিস্তানের এই প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে চিকিৎসার জন্য চার সপ্তাহ দেশের বাইরে যাওয়ার নির্দেশ দিল লাহোর হাইকোর্ট। শনিবার লাহোর হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি বাকার নাজফি এবং সহকারি দুই বিচারপতির বেঞ্চ এই রায় দান করেন। রায়ে বলা হয়েছে, চার সপ্তাহের জন্য লন্ডন গিয়ে নিজের চিকিৎসা করাতে পারবেন নওয়াজ শরিফ।

শনিবারের এই রায়ে লাহোর হাইকোর্ট ইমরান খানের সরকারকে নো-ফ্লাই লিস্ট থেকে নওয়াজ শরিফের নাম সরিয়ে নেওয়ার কথাও জানিয়ে দেয়। এই রায় নিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানিয়েছেন, কোর্টের রায় নিয়ে তাঁর কিছু বলার নেই। সবার আগে পিএমএল সুপ্রিমো নওয়াজ শরিফের স্বাস্থ্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

বুধবার পাকিস্তানের তেহেরিক-ই ইনসাফ সরকার পাকিস্তানের মুদ্রায় সাড়ে সাতশো কোটি টাকার বন্ডে নওয়াজ শরিফকে চার সপ্তাহের জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেয়। ইমরান সরকারের এই প্রস্তাব মানতে পারেননি পিএমএল সুপ্রিমো। বৃহস্পতিবার তিনি এই বন্ডের বিরোধিতা করে লাহোর হাইকোর্টে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন। তাঁর চ্যালেঞ্জকে এদিন সমর্থন জানিয়ে চার সপ্তাহের জন্য লন্ডনে যাওয়ার অনুমতি দেয় লাহোর হাইকোর্ট। চিকিৎসার জন্য চার সপ্তাহের এই বিদেশ সফরে শরিফকে কোনও ব্যক্তিগত বন্ড দিতে না হলেও তাঁকে এবং তাঁর ভাই শেহবাজকে লিখিত আকারে একটি রিপোর্ট আদালতে পেশ করতে বলা হয়েছে।

৬৯ বছর বয়সি এই প্রাক্তন এই পাক প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে কঠিন অসুখে ভুগছেন। তাঁর শরীরে রক্তের প্লেটলেট অস্বাভাবিক ভাবে নেমে যাচ্ছে। বর্তমানে তিনি নিজের বাসভবন লাহোরের কাছেই একটি হাসপাতালের আইসিইউ’তে চিকিৎসাধীন। এদিকে দাদার অসুস্থতা নিয়ে শনিবার মুখ খোলেন নওয়াজের ভাই শেহবাজ। লন্ডনে চিকিৎসার জন্য দেরিতে ছাড়পত্র মেলায় ইমরান খানকে তোপ দাগেন তিনি। শেহবাজ বলেন, তাঁর দাদার অসুস্থতা এবং স্বাস্থ্য নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছে ইমরান খান।

লাহোর থেকে লন্ডনে যাওয়ার জন্য একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্স এর ব্যবস্থা করেন নওয়াজ শরিফের ছেলে হোসেন নওয়াজ। তিনি এদিন বলেন, বাবার স্বাস্থ্য খুবই খারাপ, চিকিৎসার প্রয়োজনে তাঁকে বিদেশ যাওয়ার কথা জানিয়েছেন লাহোরের ডাক্তাররা। সেই উদ্দেশ্যেই চিকিৎসা করানোর জন্য তাঁকে লন্ডন নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি আল আজিজা মিলস এবং আর্থিক তছরুপের মামলা থেকে আট সপ্তাহের জামিন পেয়েছেন তিনি। তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করেই এই বেল ঘোষণা করেছে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট।