মাদ্রিদ: ৮ জুন থেকে দেশের মাটিতে ফুটবল সহ সমস্ত ধরনের স্পোর্টস ইভেন্ট শুরু করা যেতে পারে। গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো স্যাঞ্চেজের এমন সবুজ সংকেতের পরই শুরু হয়ে গিয়েছিল তোড়জোড়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পরদিনই লা লিগা প্রেসিডেন্ট জেভিয়ার তেবাস ১১ জুন থেকে লিগ শুরুর একটা প্রাথমিক ঘোষণা করেছিলেন। সেভিয়া ডার্বির মধ্যে দিয়ে করোনা পরবর্তী সময় স্পেনের প্রিমিয়র ডিভিশন ফুটবল লিগ চালুর বার্তা দিয়েছিলেন তিনি।

শুক্রবার স্পেনের ক্রীড়ামন্ত্রকের তরফ থেকে এক বিবৃতিতে আগামী ১১ জুন থেকে লা লিগা পুনরায় চালুর ব্যাপারেই সিলমোহর পড়ল। অর্থাৎ, প্রেসিডেন্ট তেবাসের কথামতোই সেভিয়া বনাম রিয়াল বেটিসের ম্যাচ দিয়ে করোনা পরবর্তীতে ঢাকে কাঠি পড়ছে মেসিদের লিগে। বিবৃতিতে স্পেনের ক্রীড়ামন্ত্রক জানিয়েছে, ‘স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন এবং লা লিগা কর্তৃপক্ষের যৌথ সম্মতিক্রমেই লা লিগা এবং দ্বিতীয় ডিভিশনের বাকি ১১ রাউন্ডের সূচি ঘোষিত হল।’

প্রথমদিন অর্থাৎ ১১ জুন একটিমাত্র ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ১৩ জুন থেকে সপ্তাহান্তে নিয়ম মেনে শুরু হবে অবশিষ্ট রাউন্ডের খেলাগুলি। সবকিছু ঠিকঠাক চললে ১৮ এবং ১৯ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে শেষ রাউন্ডের ম্যাচ। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে পরবর্তী মরশুম শুরুর দিনক্ষণও চূড়ান্ত করা হয়েছে। উল্লেখ্য, লা লিগা ফেরার দিন ঘোষিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ইউরোপের প্রথম সারির চার মেজর সকার লিগই করোনা পরবর্তীতে ফুটবল শুরু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করল। একমাত্র ফরাসি লিগা ওয়ান করোনা উদ্বেগের মধ্যে মাঝপথেই ২০১৯-২০ মরশুম বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

বৃহস্পতিবারই করোনা পরবর্তী সময় দেশে প্রিমিয়র ডিভিশন ফুটবল লিগ চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে ইংলিশ প্রিমিয়র লিগ এবং লা লিগা। ১৭ জুন যখন ইংল্যান্ডে করোনা পরবর্ত সময় শুরু হচ্ছে ফুটবল তখন রোনাল্ডোদের লিগে করোনার পর প্রথম বল গড়াবে ২০ জুন। ১৬ মে থেকে চালু হয়ে গিয়েছে বুন্দেসলিগা। লা লিগার সিদ্ধান্ত গ্রহণই একমাত্র বাকি ছিল। ইপিএল, সিরি-‘এ’ চূড়ান্ত দিন ঘোষণা করে ফেলায় আর দেরি করল না লা লিগা। ২৭ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত লিগ শীর্ষে রয়েছে বার্সেলোনা। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে ঠিক দু’পয়েন্ট পিছনে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV