ব্রুজ: চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অ্যাওয়ে ম্যাচে বড় ব্যবধানে জয় পেল পিএসজি৷ মঙ্গলবার রাতে বেলজিয়ামের ক্লাব ব্রুজকে ৫-০ হারাল ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা৷ সেই সঙ্গে চলতি মরশুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজের জয়ের ধারা অব্যাহত রাখল ফরাসি ক্লাবটি৷

মাউরো ইকার্দির গোলে শুরুতেই এগিয়ে গিয়েছিল পিএসজি৷ কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে বদলি নেমে হ্যাটট্রিক করে ম্যাচে নজর কাড়েন কিলিয়ান এমবাপে৷ গতিতে প্রতিপক্ষকে এলোমেলো করে দেন এই ফরাসি স্ট্রাইকরা। ক্লাব ব্রুজের বিপক্ষে বড় জয়ে চলতি মরশুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তাদের জয়ের যাত্রা অব্যাহত রাখল টমাস টুখেলের দল। এই জয়ের ফলে ৩ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষ স্থান ধরে রাখল পিএসজি৷

এমবাপের হ্যটট্রিক ও জোড়া গোল করেন আর্জেন্তিনার জাতীয় দলে উপেক্ষিত ইকার্দি। ম্যাচের সপ্তম মিনিটে আচমকা আক্রমণে তাঁর গোলে এগিয়ে যায় পিএসজি। নিজেদের ডি-বক্সের ঠিক সামনে থেকে উঁচু করে ডান প্রান্তে বল বাড়ান অধিনায়ক সিলভা। মাথা দিয়ে বল নামিয়ে ইকার্দিকে আড়াআড়ি পাস দেন ডি’মারিয়া। তা ধরে নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করেন আর্জেন্তাইন ফরোয়ার্ড।

গোল হজম কর অবশ্য পিএসজি-কে চেপে ধরে ব্রুজ। গোল শোধ করতে মরিয়া হয়ে ওঠে তারা৷ তবে ১৪ মিনিটে প্রতি-আক্রমণে গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন ডি’ মারিয়া। কিন্তু বিরতির পর দু’ মিনিটের ব্যবধানে দু’ গোল হজম করে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ব্রুজ৷

ম্যাচের ৫২ মিনিটে মোটিংয়ের বদলি হিসেবে মাঠে নামার ৯ মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এমবাপে। বাঁ-দিক থেকে ডি’ মারিয়ার নেওয়া শট ব্রুজের গোলরক্ষক সিমোন মিনোলে ঝাঁপিয়ে আটকে দেন৷ কিন্তু বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বলে হেডে দিয়ে গোল করেন এমবাপে৷ মিনিট দু’য়েকের ব্যবধানে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে দলকে আরও এগিয়ে নেন ইকার্দি। প্রতিপক্ষ রক্ষণের ভুলে ডি-বক্সে এমবাপে-র পাস থেকে গোল করেন ইন্টার মিলান থেকে লোনে খেলতে আসা ২৬ বছর বয়সি এই আর্জেন্তাইন স্ট্রাইকার।

৭৯ মিনিটে ডি’ মারিয়ার থ্রু বল পেয়ে জোরাল শটে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন এমবাপে। এর মিনিট চারেক পর ডি’ মারিয়ার পাস থেকে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারকে পরাস্ত করে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ২০ বছর বয়সি এই ফরাসি ফরোয়ার্ড। ২০০৮ সালের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বদলি নেমে এটাই কোনও খেলোয়াড়ের প্রথম হ্যাটট্রিক।