নয়াদিল্লি: রিদ্ধিরাজ কুমার৷ কুয়েতবাসী এই প্রবাসী ভারতীয় ছাত্রই আজ ভারতের গর্ব৷ ভারতীয় সেনাবাহিনীর ওয়েলফেয়ার ফান্ডের জন্য ১৮হাজার টাকার একটি চেক তুলে দিল সে৷ শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সে৷ সেখানেই প্রধানমন্ত্রীর এই চেকটি তুলে দেয় রিদ্ধিরাজ৷ অস্ট্রেলিয়ান কাউন্সিল ফর এডুকেশন রিসার্চের তরফে এই বিশেষ পুরষ্কারটি পেয়েছিল রিদ্ধিরাজ৷ যার পুরো টাকাটিই সে দেশের সেনাদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দিলেন৷ তবে, তার বয়স শুনলেও চমকে যাবেন৷ রিদ্ধিরাজের বয়স মাত্র ১০৷ আর এই দশ বছরেই সে এমন করে দেখালো যা হয়তো অনেকেই ভাবতেও পারেনা৷

আরও পড়ুন: ‘পাকিস্তানের হেফাজতে নিখোঁজ ৭৫ ভারতীয় সেনা জওয়ান’

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর দফতরে শুধু রিদ্ধিরাজই নয়৷ তাঁর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ওই মেধাবি ছাত্রের মা ক্রুপা ভাট৷ রিদ্ধিরাজ জানিয়েছেন, এসিইআর থেকে তিনি এই বিশেষ পুরষ্কারটি পেয়েছিলেন৷ ইন্টারন্যাশানাল বেঞ্চ মার্ক টেস্টে উত্তীর্ণ হয়ে তিনি এই পুরষ্কারটি পান৷ তবে, শুধু তাই নয়৷ রিদ্ধিরাজ বিভিন্ন প্রোজেক্টও বানিয়েছে৷ যেগুলি একেবারেই তাক লাগিয়ে দিয়েছে বিশ্বকে৷ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এই সাক্ষাতে রিদ্ধিরাজের মাকেও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোদী৷ তবে, তা রিদ্ধিরাজের জন্য নয়৷ ক্রুপা ভাটের নিজের কাজের জন্যই প্রধানমন্ত্রী তাকে ধন্যবাদ জানান৷

আরও পড়ুন: শত্রুপক্ষের মোকাবিলায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে আসবে এই ‘এয়ার মিসাইল’

শ্রীমতি ক্রুপা ভাট জানিয়েছেন, ‘Every Child is Genius Project’ নামক একটি সংস্থাতে কাজ করেন তিনি৷ সেই সংস্থাটি প্রায়ই ফ্রি সেমিনারের আয়োজন করে দেশের সমস্ত শিক্ষক দেরকে নিয়ে৷ এই বিশেষ সেমিনারটি আয়োজনের মূল কারণটি হল, দেশজুড়ে মেধাবি ছাত্র ছাত্রীদেরকে চিহ্নিত করার জন্যই এই বিশেষ সেমিনারের আয়োজন করেছেন তিনি৷ ক্রুপা ভাটকে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি ওই বিশেষ সংস্থাটিকেও এমন ধরনের কাজ আরও করার জন্য এদিন প্রেরণা দিলেন প্রধানমন্ত্রী৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।