মুম্বই: বাড়ির মধ্যেই মিলল নামজাদা অভিনেতা কুশল পাঞ্জাবির নিথর দেহ। যার জেরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলিউডে। অভিনেতা করণভীর বোহরা তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে এই কথা জানান, তাঁর পরেই ঘটনার কথা সামনে আসে।

কুশলের বয়স হয়েছিল মাত্র ৩৭। তাঁকে শেষবার দেখা গিয়েছিল ‘ইস্ক মে মরজাওয়া’ তে। বৃহস্পতিবার রাতে অভিনেতার বাড়িতেই তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। শুক্রবার বিকেল ৪ টের সময় তাঁর অন্তিম ক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

২০১৫ সালে ইউরোপীয়ান বান্ধবী আউড্রে ডলহেনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন কুশল পাঞ্জাবি। তাঁদের একটি ৩ বছরের ফুটফুটে ছেলেও রয়েছে। এমনকি মৃত্যুর মাত্র ২২ ঘন্টা আগেও তিনি ছেলে কিয়ানের একটি ফটো শেয়ার করেছিলেন নিজের সোশ্যাল প্রোফাইলে।

কুশল পাঞ্জাবির বন্ধু করণভীর বোহরা সোশ্যাল মাধ্যমে কুশলের মৃত্যু সংবাদ শেয়ার করে লেখেন, “এই মৃত্যুর ঘটনা আমাকে অবাক করেছে। আমি এখনও এটা বিশ্বাস করে উঠতে পারছি না। “

পাশাপাশি তিনি লেখেন, আমি জানি তুমি ভালো জায়গাতেই আছো। কিন্তু এটা মেনে নেওয়া যায় না। করণভীর জানান, যেভাবে কুশল জীবন যাপন তা তাঁকে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত করেছিল। তিনি যে তাঁকে মিস করবেন সে কথাও লেখেন কুশল পাঞ্জাবি।

উল্লেখ্য, একাধিক বলিউড সিনেমায় দেখা গিয়েছিল কুশল পাঞ্জাবিকে। অক্ষয় কুমার থেকে শুরু করে অজয় দেবগণের মতো তারকা চরিত্রের সঙ্গেও দেখা গিয়েছে এই বলি অভিনেতাকে। তাঁর এই অকাল মৃত্যুতে শোকের ছায়া বলি ইন্ড্রাস্ট্রিতে। এছাড়া ‘ঝলক দিখলা যা’-এর মতো রিয়ালিটি শোতেও দেখা গিয়েছে এই নামী অভিনেতাকে।

তবে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হওয়া নিয়ে উঠেছে নানান প্রশ্নও। কুশল পাঞ্জাবি আত্মহত্যা করেছে নাকি অন্য কিছু তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.