জয়পুর: আইপিএলের আসন্ন মরশুমে নয়া অবতারে ধরা দিতে চলেছেন কুমার সঙ্গাকারা। দ্বীপরাষ্ট্রের প্রাক্তন অধিনায়ককে নিজেদের ‘ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট’ পদে আসীন করল রাজস্থান রয়্যালস কর্তৃপক্ষ। রবিবার রাজস্থান রয়্যালস ফ্র্যাঞ্চাইজির তরফ থেকে গোটা বিষয়টিয়ে সিলমোহর দেওয়া হয়। সঙ্গাকারাকে ‘কিংবদন্তি’ আখ্যা দিয়ে টুইটারে বিশেষ এই ঘোষণাটি করা হয় আর আর ফ্যামিলির পক্ষ থেকে।

রাজস্থান রয়্যালস লেখে, ‘রয়্যাল পরিবারে কিংবদন্তির সংযুক্তিকরণ। স্বাগত সঙ্গাকারা। হাল্লাবোল।’ গত বুধবার প্লেয়ার রিটেইনশন তালিকা প্রকাশের দিন ঘোষণাটি করে দিয়েছিলেন ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিক মনোজ বাদালে। রিটেইন ক্রিকেটারদের তালিকা ঘোষণার পরেই বাদালে জানিয়ে দিয়েছিলেন দলের নয়া ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট পদে বসতে চলেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রায় ২৮ হাজার রানের মালিক।

রাজস্থান রয়্যালস কর্তৃপক্ষের ঘোষণার প্রত্যুত্তরে টুইটারে নিজের উত্তেজনার কথা শেয়ার করে নিয়েছেন সঙ্গা। প্রাক্তন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রাজস্থান রয়্যালসের টুইটের প্রত্যুত্তরে লেখেন, ‘বোর্ডের একটি বিশেষ পদে বসতে পেরে রোমাঞ্চ অনুভব করছি। একইসঙ্গে মুখিয়ে রয়েছি প্রত্যেকের সঙ্গে কাজ করতে।’ এর আগে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টি২০ লিগের একাধিক ক্লাবের মেন্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন সঙ্গা। পাশাপাশি প্রথম নন-ব্রিটিশ হিসেবে মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) সভাপতি পদে এখনও বহাল রয়েছেন দ্বীপরাষ্ট্রের এই কিংবদন্তি।

গত বুধবার আসন্ন আইপিএলের জন্য প্লেয়ার রিটেইন তালিকায় চমক এনেছে রাজস্থান রয়্যালস। অজি তারকা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথকে ছেঁটে ফেলে বোর্ডের কাছে নিজেদের প্লেয়ার তালিকা পাঠিয়েছে আইপিএলের প্রথম সংস্করণের চ্যাম্পিয়নরা। আসন্ন মরশুমের অধিনায়ক হিসেবে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি সঞ্জু স্যামসনের নাম ঘোষণা করেছে। অন্যান্যদের মধ্যে আকাশ সিং, অনিরুদ্ধ যোশী, অঙ্কিত রাজপুত, ওশানে থমাস, টম কারেন, শশাঙ্ক সিং এবং বরুণ অ্যারনকে ছেড়ে দিয়েছে রাজস্থান ফ্র্যাঞ্চাইজি। পাশাপাশি অর্থের বিনিময়ে রবিন উথাপ্পাকে চেন্নাই সুপার কিংসের হাতে তুলে দিয়েছে তারা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।