চণ্ডীগড়: দ্বাদশ আইপিএলের শুরুতে যে বিতর্কে ক্রিকেট দুনিয়া তোলপাড়, সেই মানকাডিং করার সুযোগ পেয়েও অশ্বিন হলেন না ক্রুনাল পান্ডিয়া৷

শনিবার চণ্ডীগড়ে ঘরের মাঠে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলতে নেমেছিল কিংস ইলেভেন পঞ্জাব৷ ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ১৭৬ রান করে রোহিতের মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ জবাবে গেইলের ব্যাটে ভর করে দারুণ শুরু করে প্রীতির দল৷

পঞ্জাবের রান তাড়া করার সময়ই দশম ওভারে মানকাডিংয়ের সুযোগ পেয়েও ব্যাটসম্যানকে সতর্ক করে সৌজন্য দেখান ক্রুণাল পান্ডিয়া৷ ওভারের তৃতীয় বলে বোলিং এন্ডে ছিলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল৷ বল করার আগে বোলিং এন্ডের পপিং ক্রিজ থেকে অনেকটাই এগিয়ে যান মায়াঙ্ক৷ এরপরই বল উইকেটের কাছে এনে সতর্ক করেন পান্ডিয়া৷ সেসময় ১৯ রানে ব্যাটিং করছিলেন মায়াঙ্ক৷ পঞ্জাবের দলগত স্কোর ছিল ৮০/১৷ চাইলে অনায়াসেই মায়াঙ্ককে মানকাডিং আউট করতে পারতেন ক্রুণাল৷ মোক্ষম সময়ে উইকেট পেলে ম্যাচে ফিরতে পারত মুম্বই৷ শেষ পর্যন্ত ক্রুণাল মায়াঙ্ককে মানকাড করেননি৷ পরে ২১ বলে ৪৩ রানের দামি ইনিংস খেলেন মায়াঙ্ক৷ অন্যদিকে ৭১ রানে অপরাজিত থেকে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন লোকেশ রাহুল৷

উল্লেখ্য দ্বাদশ আইপিএলের শুরুতে রাজস্থান রয়্যালসের জোস বাটলারকে মানকাডিং আউট করেন অশ্বিন৷ সেই আউট নিয়ে ক্রিকেটদুনিয়ায় সোরগোল পড়ে যায়৷ স্পোর্টসম্যান স্পিরিট ভুলে বিপক্ষ ব্যাটসম্যানকে অশ্বিনের এভাবে আউট করাকে অনেকেই মেনে নিতে পারেননি৷ যদিও রুল বুক অনুয়ায়ী ব্যাটসম্যানকে সতর্ক না করেই আউট করার নতুন নিয়ম রয়েছে৷

আরও পড়ুন- মানকাডিংয়ের পর এবার নো বল বিতর্ক, খেসারত দিল কোহলির আরসিবি

ক্রিকেটের নিয়ম মেনে আউট করার ঘটনায় অনুতপ্ত নন বলেই স্বীকার করেন অশ্বিন৷ যদিও সেই বিতর্ক নিয়ে এখনও ক্রিকেটমহলে জোর আলোচনা চলছে৷ এর মাঝেই অশ্বিনের উল্টোপথে হেঁটে স্পোর্টসম্যান স্পিরিটের নিদর্শন রাখলেন ভারতীয় ক্রিকেটের সিনিয়র পান্ডিয়া৷ মায়াঙ্ককে মানকাডিং করার পরিবর্তে সতর্ক করে স্পোর্টসম্যান স্পিরিট দেখানোয় ক্রুণালের প্রশংসায় ক্রিকেটমহল৷