স্টাফ রিপোর্টার কলকাতা : সকাল থেকে বৃষ্টিতে ভেসেছে হাওড়া ও কলকাতা। হাওড়ার রেকর্ড হাওয়া অফিস না দিলেও কল্কাতাতেও দফায় দফায় বৃষ্টি হয়। ফলে তাপমাত্রা বাড়লেও তেমন অস্বস্তি অনুভূত হয়নি। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ৭.৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় কলকাতায়। ৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় দমদমে, ৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় সল্টলেকে। বৃষ্টিতে কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে, যা ৩২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৬ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৭৪ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ১১.৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় কলকাতায়। গত ২৪ ঘণ্টায় শহরে ১৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। ৬.৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় দমদমে, ৭.৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় সল্টলেকে। বৃষ্টিতে কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নীচে নেমে যায়। বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। বুধবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা অনেকটাই কম ছিল। ২৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস , যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৯ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৮৮ শতাংশ।

হাওয়া অফিসের রেকর্ড অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে শহরে ২৮.৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় বুধবার সকাল থেকে। ১০.৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় দমদমে, ৪.২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় সল্টলেকে। হাওড়াতেও ঝেঁপে বৃষ্টি হয়। তবে এর পরিমাণ কত তা হাওয়া অফিস জানা যায়নি। বলা যেতে পারে এই তিন জেলার থেকেও হাওড়া শহরাঞ্চলে ব্যাপক বৃষ্টি হয়। কলকাতার তাপমাত্রা নামে স্বাভাবিকের নীচে। সৌজন্যে ওই বৃষ্টি। বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম ছিল। মঙ্গলবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কমেছিল। ছিল ৩১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস , যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৯ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৭৬ শতাংশ।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।