স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : আশ্বিন মাস শুরু হয়ে গেল। বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। তবে কলকাতায় এর প্রভাব কিছুই পড়েনি। বৃহস্পতিবার বিকালে খানিক বিদ্যুতের ঝলকানি দেখা যায় তারপর আর কিছু হয়নি। খানিক হাওয়া দিয়ে মেঘ কেটে যায় বৃদ্ধি পায় অস্বস্তি। শুক্রবার সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা। তবে এদিনও কমেনি রোদের তেজ, সঙ্গে উপস্থিত আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি।

শুক্রবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বৃহস্পতিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৩ ও সর্বনিম্ন ৫৯ শতাংশ। বৃষ্টি হয়নি। দমদম বৃষ্টি হয় ছিটেফোঁটা। সল্টলেকে বৃষ্টি হয়নি। আজ সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩৬ ও ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে।

বৃহস্পতিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৮.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বুধবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৩ ও সর্বনিম্ন ৬১ শতাংশ। বৃষ্টি হয়নি। দমদম বৃষ্টি হয়নি। সল্টলেকে বৃষ্টি হয়নি। আজ সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩৫ ও ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে।

বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। মঙ্গলবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৪ ও সর্বনিম্ন ৬৯ শতাংশ। বৃষ্টি হয় ১.৯ মিলিমিটার। দমদম বৃষ্টি হয় ১৯.৩ মিলিমিটার। সল্টলেকে বৃষ্টি হয় ১৫.১ মিলিমিটার। আজ সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩৫ ও ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। অর্থাৎ কীভাবে হু হু করে বাড়ছে শহরের তাপমাত্রা তা স্পষ্ট।

তবে রাজ্যের পশ্চিমের জেলায় ভালোই বৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত আসানসোলে ২৭.৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। বাঁকুড়ায় ৫৮.০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। ব্যরাকপুরে বৃষ্টির পরিমাণ ২০.০ মিলিমিটার। পানাগড়ে ২৮.৬ মিলিমিটার, পুরুলিয়ায় ৫৪.০ মিলিমিটার, শ্রীনিকেতনে ২৯.০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে নদিয়া, পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব বর্ধমান এবং মুর্শিদাবাদে। কলকাতা সহ বাকি জেলাতেও মেঘলা আকাশ, বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকবে। সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে ৭ জেলায়। বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম, বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বভাস রয়েছে।

কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে এই বৃষ্টি। সৌজন্যে অন্ধ্র উপকূলের আসন্ন নিম্নচাপ, যা ঘনীভূত হলেই বড় পরিবর্তন হবে দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলায়।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।