স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : বৃষ্টি চলছে, অস্বস্তিকে কমিয়ে স্বাভাবিকের নিচেই রয়েছে শহরের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিসের তথ্য। বৃহস্পতিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। বুধবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ৩৭.৪ মিলিমিটার। আজ সকাল পর্যন্ত বৃষ্টির পরিমান ৩৩.০ মিলিমিটার দমদমে ১৭.৮ ও সল্টলেকে ১৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়।

মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। বুধবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ২৬.৮ মিলিমিটার। দমদমে ৫০.৬ ও সল্টলেকে ১৭.৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। সোমবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি বেশি। মঙ্গলবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ ক্ষেত্রেও স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয় ২০ মিলিমিটার।

শক্তি হারাচ্ছে বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হওয়া নিম্নচাপ। তার জেরে আজ, বৃহস্পতিবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণও কমবে। তবে আজ সারাদিনই পশ্চিমের জেলাগুলিতে বৃষ্টি একেবারে থেমে যাবে না। কম বেশি বৃষ্টি হবে। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছিল, চলতি সপ্তাহে মঙ্গলবার উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হবে। ওডিশা এবং পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ প্রান্তের জেলাগুলিতে প্রবল বৃষ্টির সতর্কতা জারি করে আবহাওয়া দফতর। পূর্বভাস মতো গত দুই দিন ধরে বৃষ্টিও হয়েছে দক্ষিনবঙ্গের বিভিন্ন জেলাগুলিতে। বুধবার সতর্কতা বার্তায় জানানো হয়, আজ বৃহস্পতিবার মূলত দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া এবং বাঁকুড়া জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে। বাকি জেলায় বৃষ্টির পরিমান কমবে। তবে মাঝে মাঝেই বৃষ্টি হবে। এর কারন কি? হাওয়া অফিস জানাচ্ছে , বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ বর্তমানে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। শক্তি সঞ্চয় করে সুস্পষ্ট নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশ উপকূল থেকে সরে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িশা উপকূলে অবস্থান করছে। এর জেরেই আজ বৃষ্টির আবহে পরিবর্তন আসবে।

ভালো পরিমান বৃষ্টি হতে পারে দুই বর্ধমান, বীরভূম এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলাতেও। কোথাও কোথাও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিও হতে পারে। তবে গতকাল যে বৃষ্টি হয়েছে তাঁর থেকে বৃষ্টি কমবে সব জেলাতেই। এদিন সকাল পর্যন্ত আসানসোলে ৪২.৩ , বাঁকুড়ায় ১৮.৩, বর্ধমানে ৩০.৪, ক্যানিংয়ে ৫০.২, হলদিয়ায় ২১.৪, মেদিনীপুরে ২৫.৪, শ্রীনিকেতনে ৩১.০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির এই পরিমান কমবে বলে পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের। পাশাপাশি বর্ষার স্বাভাবিক বৃষ্টি চলবে উত্তরবঙ্গ থেকে দক্ষিণবঙ্গের জেলায়।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও