স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : মেঘলা আকাশ আর গতকালের বৃষ্টি। দুয়ের জেরে বৃহস্পতিবার অস্বস্তিজনক গরম আপাতত নেই শহর কলকাতায়। তবে বৃষ্টি না হলে ফের গরম বাড়বে। তাপমাত্রা থাকবে সর্বোচ্চ ৩০ ও সর্বনিম্ন ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে।

বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ১১.৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় কলকাতায়। গত ২৪ ঘণ্টায় শহরে ১৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। ৬.৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় দমদমে, ৭.৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় সল্টলেকে। বৃষ্টিতে কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নীচে নেমে যায়। বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। বুধবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা অনেকটাই কম ছিল। ২৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস , যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৯ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৮৮ শতাংশ।

হাওয়া অফিসের রেকর্ড অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে শহরে ২৮.৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় বুধবার সকাল থেকে। ১০.৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় দমদমে, ৪.২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় সল্টলেকে। হাওড়াতেও ঝেঁপে বৃষ্টি হয়। তবে এর পরিমাণ কত তা হাওয়া অফিস জানা যায়নি। বলা যেতে পারে এই তিন জেলার থেকেও হাওড়া শহরাঞ্চলে ব্যাপক বৃষ্টি হয়। কলকাতার তাপমাত্রা নামে স্বাভাবিকের নীচে। সৌজন্যে ওই বৃষ্টি। বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম ছিল। মঙ্গলবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কমেছিল। ছিল ৩১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস , যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৯ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৭৬ শতাংশ।

এদিকে ওডিশার নিম্নচাপের জেরে দক্ষিণবঙ্গের বৃষ্টিহীন অবস্থা কিছুটা কেটেছে। কিছুটা, কারণ বৃষ্টির ব্যাপক প্রয়োজন ছিল সমস্ত দক্ষিণের জেলায়। শুধুমাত্র উত্তরবঙ্গের উপর নির্ভর করে রাজ্যের বৃষ্টির অঙ্ক স্বাভাবিক দেখাচ্ছিল কিন্তু ভিতরের চিত্রটা তেমন ছিল না। ঘাটতিতে ভরতি ছিল। সেখান থেকে ভালো বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়। তাও টানা তিন দিন ধরে। কিন্তু পূর্বাভাসের প্রথম তিন দিনে তেমনটা হয়নি যতটা দেখা যায় সম্ভাবনাময় চতুর্থ দিনে।

মোটের উপর বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি কিছুটা হলেও অস্বস্তিকে কমিয়েছে। তবে বেশ কিছু জেলা এখনও বৃষ্টিহীনই রইল। হাওয়া অফিসের রেকর্ড সেই তথ্যই দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত আসানসোলে বৃষ্টি হয়নি। বাগাতিতে ১২.০ মিলিমিটার, ব্যরাকপুরে ১৭.৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে, বর্ধমানে বৃষ্টি হয়নি, ক্যানিংয়ে ২৬.৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে, কাঁথিতে ১৫.০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে, দিঘায় ০.৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে, ডায়মন্ড হারবারে ৩৬.৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে, হলদিয়ায় ৬৪.২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে, কৃষ্ণনগরে বৃষ্টি হয়নি, পানাগড়, পুরুলিয়া, শ্রীনিকেতনের কোথাও বৃষ্টি হয়নি।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।