স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : একদিকে সকালের অনেকটা বেশি সকালের তাপমাত্রা। অপরদিকে দুপুরের পারদ চড়তে পাড়ছে না। ফলে ‘ব্যালেন্স’ হয়ে যাচ্ছে সারা দিনের গরম। অস্বস্তির আভাস থাকলেও গরম কম রয়েছে। সবমিলিয়ে শহরের গ্রীষ্মে প্যাচপ্যাচে গরমের দিন যে এই মরসুমে আবারও কমের দিকেই যাচ্ছে তা স্পষ্ট।

মঙ্গলবার সকালে কলকাতার সর্বনিম্ন ২৮.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের দুই ডিগ্রি বেশি। আবার সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩২.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। আর এভাবেই ভারসাম্য বজায় থাকছে পারদের। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৮৭ সর্বনিম্ন ৭২ শতাংশ। ছিটেফোঁটা বৃষ্টিও হয়েছে শহরে। আজ শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। এবার আজ থেকে কতটা গরমে ভারসাম্য আসতে পারে সেটাই দেখার।

 

রবিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, ২৮.৫ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। শনিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯১ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৬০ শতাংশ। বৃষ্টি হয়নি। এদিন হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলেই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। তাপমাত্রা থাকবে সর্বোচ্চ ৩৫ থেকে সর্বনিম্ন ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অর্থাৎ ফের সকালের পারদ যেমন বেড়েছে, বৃদ্ধি পাবে বেলার তাপমাত্রাও।

 

বিগত কয়েকদিন কীভাবে বেড়েছে শহরের তাপমাত্রা তা স্পষ্ট হয়ে যাবে তাপমাত্রার দিকে নজর রাখলেই। শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯২ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৬৪ শতাংশ। বৃষ্টি হয়নি। শনিবার বৃষ্টির সম্ভাবনা ছিল। আদতে তা হয়নি। বলাই হয়েছিল তাপমাত্রা থাকবে সর্বোচ্চ ৩৪ ডিগ্রিতে পৌঁছাবে। সেটাই হয়েছিল। তারপর থেকে ফের নীচের দিকেই থেকে শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। আজ মঙ্গলবার যা ফের ৩৪এ যেতে পারে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প