কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী চেয়ারে বসেই কলকাতাকে লন্ডন বানানোর স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবার সেই লক্ষ্যেই একধাপ এগিয়ে গেলেন তিনি৷ লন্ডনের মতোই এবার এক কার্ডে সমস্ত সরকারি পরিবহন পরিষেবায় ভাড়া মেটানোর ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে রাজ্য সরকার৷ সেই লক্ষ্যেই বুধবার উদ্বোধন হল ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সপোর্ট কার্ড’৷ যার মাধ্যমে শহরের সরকারি বাস, ট্রাম ও ফেরি পরিষেবার ভাড়া মেটানো সম্ভবপর হবে৷

তবে এই কার্ডের আওতায় থাকবে না মেট্রো পরিষেবা৷ কারণ এটি কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রক৷ এমনই জানিয়েছেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী৷ এক আধিকারিক জানিয়েছেন, মেট্রোকেও এই কার্ডের আওতায় আনতে তারা আগ্রহী৷ ঠিক যেমন লন্ডনে প্রচলিত ওয়েস্টার কার্ডের মাধ্যমে টিউব রেলসহ সমস্ত রকমের পাবলিক ট্রান্সপোর্টের ভাড়া মেটানো যায়৷ বর্তমানে কলকাতার পাঁচটি সরকারি বাস ডিপো থেকে পাওয়া যাবে এই কার্ড৷ পরে আও ২০টি ডিপোতে মিলবে এই কার্ড৷

এছাড়াও পরিবহন দফতরের পক্ষ থেকে আরও দুটি নয়া পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে৷ রাজ্য সরকারি বাস চালক ও কন্ডাকটরদের জন্য নয়া পোশাক দেওয়া হয়েছে৷ পোশাকে লেখা রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচলিত ‘Safe Drive, Save Life’ স্লোগান৷ এছাড়া ‘পথদীশা’ নামের একটি নয়া অ্যাপও চালু করেছে রাজ্য সরকার৷ যার মাধ্যমে সরকারি বাস সম্পর্কিত তথ্য পাবেন যাত্রীরা৷ কোন বাস কোথায় আছে, কখন আসবে, বাসে সিট রয়েছে কিনা, গন্তব্যে পৌঁছাতে কত সময় লাগবে এমন নানাবিধ তথ্যের সন্ধান দেবে এই অ্যাপ৷ জানা গিয়েছে, বাসগুলিতে জিপিএস সিস্টেম ও সিসিটিভি থাকার ফলে মহিলাদের নিরাপত্তাও অনেকটা নিশ্চিত করা যাবে৷ এছাড়া কোনও দুর্ঘটনা ঘটলে পুলিশ, দমকল পরিষেবার ক্ষেত্রেও সাহায্য করবে এই নয়া অ্যাপ৷ জানা গিয়েছে, ওয়ার্ল্ড ব্যাংক ও কোরিয়ান গ্রিন গ্রোথ ট্রাস্ট ফান্ডের সহায়তায় এই প্রকল্প তৈরি করেছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার৷