সুভাষ বৈদ্য, কলকাতা : লকডাউন চলছে। তাই আপৎকালীন পরিষেবা ও অনলাইন ডেলিভারির জন্য চালু হল ই-পাস ব্যবস্থা।

শনিবার কলকাতা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা কলকাতাবাসীদের সুবিধার্থে আপৎকালীন পরিষেবা ও অনলাইন ডেলিভারির জন্য ই-পাস ব্যবস্থার সূচনা করলেন। তবে আবেদন করতে হবে অনলাইনে। তারপর ই-মেইল মারফত আবেদনকারীর কাছে ই-পাসটি পৌঁছে যাবে। এই ই-পাসটি গাড়ির স্ক্রিনে আটকেও ব্যবহার করা যাবে।

আপৎকালীন পরিষেবা ও অনলাইন ডেলিভারির সঙ্গে যারা যুক্ত রয়েছেন, তাদেরকে প্রথমে যেতে হবে https://coronapass.kolkatapolice.org ওয়েবসাইটে।

সেখানে অনলাইন অ্যাপ্লিকেশ ফর্ম পুরন করতে হবে। ইমেইল বা SMS মারফত একটি QR কোড পাঠানো হবে। সেই কোডের মাধ্যমে ডাউনলোড করে নেওয়া যাবে এই অনুমতি পত্র বা ই পাস।

বাইরে বেরনোর পর পুলিশ বাঁধা দিলে এই পাস দেখালে পণ্য পরিবহণে ছাড় দেওয়া হবে। আরও জানানো হয়েছে, QR-কোড যুক্ত পাসটি নির্দিষ্ট এলাকা বা সময়ের জন্য হবে।

অভিযোগ, লকডাউন ঘোষণা হতেই অতি তৎপর হয়ে ওঠে পুলিশ। আপৎকালীন পরিষেবা ও অনলাইন ডেলিভারির সঙ্গে যুক্তদের ও কাজে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ উঠে। যদিও আপৎকালীন পরিষেবাকে লকডাউন এর আওতার বাইরে রাখা হয়েছে। কিন্তু তারপরও কোথাও কোথাও পুলিশ সবজি বিক্রেতাদের হেনস্থা করে বলেও অভিযোগ উঠে।

অন্যদিকে লকডাউনে পুলিশের মানবিক মুখও দেখা গিয়েছে। অসহায় মানুষের মুখে নিজেরাই রান্না করা খাবার তুলে দিচ্ছেন। রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া, রক্তদান সহ একাধিক কাজ।

এছাড়া শহরের কলকাতার সমস্ত বয়স্ক সহনাগরিকদের যে-কোনও প্রয়োজনে, বিপদে পাশে থাকার চেষ্টা করছে কলকাতা পুলিশ। আগেই চালু করা হয়েছিল সিনিয়র সিটিজেন হেল্পলাইনের নম্বর: 9830088884

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও