সুভাষ বৈদ্য, কলকাতা: কলকাতা পুলিশের ‘টর্নেডোজ’৷ এরা হল বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত মোটরসাইকেল বাহিনী৷ যাঁদের কসরত তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো৷ শুক্রবার রেড রোডে দুর্গাপুজোর কার্নিভালে বিশেষ নজর কাড়ল টর্নেডো-বাহিনী৷

এদিন রেড রোডে দুর্গাপুজোর কার্নিভালের শুরুতে দেখা গিয়েছে কলকাতা পুলিশের ‘টর্নেডোজ’-এর প্রদর্শন৷ অতন্ত দ্রুত গতিতে চলা মোটর সাইকেলের উপর দেখানো তাদের কসরত৷ শিহরণ জাগানো দু:সাহসিক প্রদর্শন মন কেড়েছে সবার৷ প্রথমেই দেখা গেল একটি মোটর সাইকেল দ্রুত গতিতে চলছে৷ তখন তার চালক কলকাতা পুলিশের একজন সার্জেন মোটর সাইকেলের সঙ্গে একটি মইয়ের উপর দাঁড়িয়ে আছেন৷ একে একে তাদের আরও বিভিন্ন কসরত তুলে ধরেন৷ এই প্রদর্শনী থেকে বাদ যায়নি মা দুর্গাও৷ একসঙ্গে চলছে কয়েকটি মোটর সাইকেল,আর তার সঙ্গে রয়েছেন সপরিবারে মা দুর্গা৷ কলকাতা পুলিশের এই ব্যালেন্স দেখে অভিভূত হয়েছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে বিদেশী অতিথিরাও৷

এবারের দুর্গাপুজোর মেগা কার্নিভালে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার পাশাপাশি তুলে ধরা হয়েছে বাংলার সংস্কৃতি৷ টেরাকোটার সাজে সাজিয়ে তোলা হয়েছে রেড রোড৷ কার্নিভালের থিম রাঙা মাটির বাংলা৷ কার্নিভালের মূল মঞ্চকে সাজানো হয়েছে বাঁকুড়ার পোড়া মাটির শিল্প দিয়ে৷ রয়েছে চন্দন নগরের আলো৷ শোভাযাত্রায় তুলে ধরা হয়েছে বাংলার সংস্কৃতিকে৷ যা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন দেশ বিদেশ থেকে রেড রোডে আসা পর্যটকরা৷ শুক্রবার কার্নিভালে আমন্ত্রিত ছিলেন ৩০০০ অতিথি৷ তার মধ্যে অনেক বিদেশি অতিথি ছিলেন৷

রেড রোডের কার্নিভাল উপলক্ষে এদিন নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল আঁটোসাটো৷ প্রায় দুই হাজার অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েত করা হয়েছিল৷ এর মধ্যে ছিলেন মহিলা পুলিশও৷ সিসিটিভি ও ওয়াচটাওয়ারে নজরদারি চলে৷ লালবাজার থেকে সরাসরি নজরদারি করা হয় সিসিটিভিতে৷

তথ্য ও সংস্কৃতি দফতর সূত্রে খবর, কলকাতাসহ মোট ৭২টি পুজো কমিটি কার্নিভালে অংশ গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে শহরতলি ও বিভিন্ন জেলার বেশ কয়েকটি পুজো কমিটি রয়েছে। তবে কার্নিভাল শুরুর আগে অশান্তি শুরু হয়৷ শুক্রবার বিকেলে রেড রোডে জমায়েত হয়েছিলেন প্রচুর সাধারণ মানুষ৷ অভিযোগ,গান্ধী মূর্তির উল্টোদিকে মেয়োরোড দিয়ে তারা রেড রোডে যেতে চাইলে, তাদেরকে পুলিশ বাঁধা দেয়৷ তাদের কাছে পাস চাওয়া হয়৷ তা নিয়েই অশান্তি৷ যদিও কিছুক্ষণের মধ্যেই পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ে আসে৷ দুরদূরান্ত থেকে আসা অনেকেই কার্নিভাল না দেখে ফিরে যেতে হয়৷