কলকাতা: সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন কলকাতা পুলিশের ইস্ট ডিভিশনের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার৷ ৫৩ দিন ভর্তি ছিলেন ইএম বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে৷ এর মধ্যে ৪৮ দিন ছিলেন আইসিইউতে৷ সোমবার তিনি হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন৷

গত ১৬ জুন করোনা পজিটিভ হওয়ার পর ইএম বাইপাসের পাশে ডিসান হাসপাতালে ভর্তি হন৷ শ্বাসকষ্ট জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার দিনই তাঁকে আইসিইউতে দিতে হয়৷ অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া, হাইপোথাইরয়েডের মত গুরুতর সমস্যা ছিল তাঁর৷ তা স্বত্বেও করোনাকে জয় করে কলকাতা পুলিশের এক অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার বাড়ি ফিরলেন৷ এতে অন্যান্য পুলিশ আধিকারিক ও পুলিশ কর্মীদের যে মনোবল বাড়বে,তা বলা যেতেই পারে৷

হাসপাতাল সূত্রে খবর, অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনারকে বাই প্যাপ মেশিনের সাহায্যে উচ্চ মাপের অক্সিজেন দেওয়া হয়৷ সঙ্গে প্রয়োজনীয় ওষুধ৷ এছাড়া মনের জোর থাকলেই এই রোগকে হারানো অনেকটা সহজ৷

ডিসান হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী থেকে হাসপাতালে ম্যানেজমেন্টের কর্মীরা প্রত্যেকে ফুলের তোড়া হাততালি দিয়ে বিদায় সম্ভাষণ জানানো হয় করোনা যোদ্ধা আধিকারিককে৷

তবে সুস্থ হয়ে উঠার পাশাপাশি ওই দিন বড়বাজার থানার ওসি করোনা আক্রান্ত হন৷ কয়েকদিন ধরে তার করোনা উপসর্গ থাকায় টেস্টর জন্য নমুনা পাঠান৷ কিন্তু সেই করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে৷ তারপর তাকে বাইপাসের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও