স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সুস্বাস্থ্যের জন্য প্রয়োজনীয় সব পুষ্টিগুণ রয়েছে ডিমে৷ ডিমের খাদ্যমান ও পুষ্টিগুণ সম্পর্কে মানুষকে অবহিত করা এবং স্বাস্থ্যসম্মত ডিম উৎপাদনে উৎসাহিত করার উদ্দেশ্যে ১৯৯৬ সালে অস্ট্রিয়ায় ভিয়েনায় ‘ইন্টারন্যাশনাল এগ কমিশন’-এর সম্মেলনে একটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়৷ সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতি বছর অক্টোবর মাসের দ্বিতীয় শুক্রবার ‘বিশ্ব ডিম দিবস’ পালিত হয়। আমাদের দেশেও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে দিবসটি পালন করা হয়ে থাকে৷

আর সেই একটি ডিমের দাম যদি হয় ৭০ টাকা৷ হ্যাঁ ঠিকই বলছি, কলকাতায় একটি ডিমের দাম তাই৷ তবে এই ডিম সাধারণ ডিমের থেকে আলাদা৷ ডিমের আকার বড় হয়। একটি ডিমের ওজন ১৪৪ থেকে ১৫০ গ্রাম হয়ে থাকে, যা সাধারণ হাঁস ও মুরগির ডিম থেকে প্রায় ৩ গুণ বেশি ওজনের হয়৷ খেতেও খুবই সুস্বাদু৷ খাদ্য সংস্থানের জন্যেও অনেকে এই ডিম পছন্দ করে থাকেন৷

প্রতিটি হাঁস বছরে দুই থেকে তিনবার ডিম দেয়। হাঁসের বয়সভেদে ডিম দেয় ৮- ১২টি। এই হাঁস জলে থাকলেও ডিম দেওয়ার সময় ফিরে আসে বাড়িতে। কারণ এরা ঘরে ডিম পাড়ে৷ নির্ধারিত স্থানে ডিম দিয়ে আবার জলে ফিরে যায়৷ আসলে এটা হল রাজহাঁসের ডিম৷

একটি ডিমের কেন এত দাম

অরগানিক পদ্ধতিতে চাষ হয়৷ হাঁসকে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে পরিচর্যার মাধ্যমে পাওয়া যায় এই অরগানিক ডিম৷ প্রাকৃতিক উপায়ে পরিচর্যা করা হয় বলে, উৎপাদিত ডিমে কোন প্রকার এন্টিবায়োটিক, রাসায়নিক অথবা ক্ষতিকারক পদার্থ থাকে না, থাকে ভেষজ উপাদানের নির্যাস ও গুণাবলি। ফলে বাজারের সাধারণ ডিম থেকে অরগানিক ডিম হয় অধিক পুষ্টিকর এবং সুস্বাদু। তাই রাজহাঁসের একটি ডিমের দাম ৭০ টাকা৷

কোথায় পাবেন

সল্টলেক সেন্ট্রাল পার্কে শুরু হয়েছে ১৪তম সরস মেলা। এই মেলাতেই পাওয়া যাচ্ছে রাজহাঁসের অরগানিক ডিম৷ এই বছর সরস মেলায় ১৯ টি জেলা থেকে ৩৬০ টি স্টল রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে খাবারের স্টলও। প্রতিদিন বেলা ২ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত মেলার স্টল খোলা থাকছে। অবশ্য ছুটির দিন দুপুর বারোটা থেকেই খুলে দেওয়া হয় মেলার গেট। মেলা চলবে ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ মার্চ পর্যন্ত। মেলা ছাড়াও এই ডিম বাজারে কিনতে পাওয়া যায়৷