কলকাতা: করোনা সংক্রমণে দু’টি জেলা চিন্তা বাড়াচ্ছে রাজ্যে৷ তার মধ্যে স্বস্তির খবর হল আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার সংখ্যা বাড়ছে ওই দুই জেলায়৷ জেলা দু’টি শহর কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণা৷ বিজয়া দশমীর সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিনের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, একদিনে কলকাতায় আক্রান্ত ৮৯২ জন৷

তুলনামূলক বেড়েছে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা৷ গত ২৪ ঘন্টায় শহরে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৭৬ জন৷ তার ফলে মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৭ হাজার ৪৩০ জন৷ তবে শুধু কলকাতায় মোট আক্রান্তের সংখ্যাটা ৭৬ হাজার ৮০৮ জন৷ অন্যদিকে উত্তর ২৪ পরগণায় একদিনে আক্রান্ত ৮৮৯ জন৷

তুলনামূলক এই জেলায়ও বেড়েছে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৯৮ জন৷ প্রায় এক হাজার৷ এর ফলে মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৩ হাজার ২৪১ জন৷ আর মোট আক্রান্তের সংখ্যাটা ৭১ হাজার ৮৩১ জন৷ এদিনের মৃতের নিরিখে কলকাতাকে ছাপিয়ে গিয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা৷

গত ২৪ ঘন্টায় কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের৷ আর উত্তর ২৪ পরগণায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ এর ফলে এই জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা ১,৪৯৭ জন৷ পাশাপাশি কলকাতায় মোট মৃতের সংখ্যা ২,১২৫ জন৷ কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা ছাড়া উদ্বেগ বাড়াচ্ছে আরও কয়েকটি জেলার সংক্রমণ৷

এগুলো হল -হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হুগলি,দুই মেদিনীপুর, নদিয়া ও দার্জিলিং৷ এদিনের স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, মোট আক্রান্ত যথাক্রমে- হাওড়া (২৪,১৯৩), দক্ষিণ ২৪ পরগনায়(২৩,৩৫৯ ),হুগলি (১৭,৩৪৪), পূর্ব মেদিনীপুর ( ১৪,২৭৫) ও পশ্চিম মেদিনীপুর (১৩,৪৬৩) জন,

নদিয়া ( ১১,৩৫৫) জন ও দার্জিলিং (১০,৮৭০) জন৷ বাকি জেলায় সংক্রমণ ১০ হাজারের নিচে৷ একদিনে যে ৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে কলকাতার ১৪ জন৷ উত্তর ২৪ পরগনার ১৫ জন৷

দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৮ জন৷ হাওড়ার ৫ জন৷ হুগলি ১ জন৷ পূর্ব বর্ধমান ১ জন৷ পূর্ব মেদিনীপুর ২ জন৷ পশ্চিম মেদিনীপুর ৬ জন৷ নদিয়া ২ জন৷ কালিম্পং ১ জন৷ দার্জিলিং ৩ জন৷ আলিপুরদুয়ার ১ জন৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।