কলকাতা: শুধু কলকাতায় মোট আক্রান্ত প্রায় এক লক্ষ৷ একদিনে প্রায় ৯০০ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় শহরে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের৷ তার ফলে কলকাতায় মোট মৃতের সংখ্যা আড়াই হাজার পেরিয়ে গেল৷

রবিবার সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য ভবন বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী, একদিনে কলকাতায় করোনা আক্রান্ত ৮৭৯ জন৷ তার ফলে কলকাতায় মোট আক্রান্ত প্রায় এক লক্ষ৷ তথ্য অনুযায়ী ৯৯ হাজার ৯০৯ জন৷ এর পরই উত্তর ২৪ পরগণা৷ এই জেলায় মোট আক্রান্ত ৯৪ হাজারের বেশি৷

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণা মিলে মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ৯৪ হাজার ১৮৪ জন৷ আর বাকি ২১ জেলায় মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ৬২ হাজার ১৭৭ জন৷ ফলে বাংলায় মোট সংক্রমণ ৪ লক্ষ ৫৬ হাজার ৩৬১ জন৷

কলকাতায় একদিনে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের৷ আর উত্তর ২৪ পরগণায় ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ দুই জেলা মিলে একদিনে মোট মৃত্যু ২৭ জন৷ আর বাকি ২১ জেলায় একদিনে মোট মৃত্যু হয়েছে মাত্র ২২ জনের৷ তার ফলে রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় মোট ৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

একদিনে কলকাতায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯১৯ জন৷ যা আক্রান্তের তুলনায় বেশি৷ তবে এই পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯০ হাজার ৪৯৪ জন৷ আর উত্তর ২৪ পরগণায় একদিনে সুস্থ ৮৮৫ জন৷ এই জেলায় আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ বেশি৷ সব মিলিয়ে এই পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৪ হাজার ৭৫৮ জন৷

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা ছাড়া উদ্বেগ বাড়াচ্ছে আরও কয়েকটি জেলার সংক্রমণ৷ এগুলো হল -হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হুগলী,পশ্চিম বর্ধমান,দুই মেদিনীপুর, নদীয়া,মুর্শিদাবাদ,মালদা,জলপাইগুড়ি ও দার্জিলিং৷

এদিনের স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, মোট আক্রান্ত যথাক্রমে
হাওড়া (২৯,৮২২),দক্ষিণ ২৪ পরগনায়(৩০,০৫৫),হুগলী (২৩,৫৪২), পশ্চিম বর্ধমান (১২,৪৬৪),পূর্ব মেদিনীপুর ( ১৭,৪৮৮) ও পশ্চিম মেদিনীপুর (১৭,৩৫০) জন,নদীয়া ( ১৬,৬১৬) জন,মুর্শিদাবাদ (১০,৪০৫) জন৷ মালদা ( ১১,১৩৪) জন, জলপাইগুড়ি (১১,৬৩৯) জন দার্জিলিং (১৪,৪৩৮) জন ও কোচবিহার ( ১০,২৬৬) জন৷ বাকি জেলায় সংক্রমণ ১০ হাজারের নিচে৷

এছাড়া অন্য রাজ্যের বাসিন্দা কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যু হয়েছে,সেই সংখ্যাটা ৩ জন৷ আক্রান্ত আরও ৬৬ জন৷ তবে তাদের মধ্যে ৬৩ জনই সুস্থ হয়ে উঠেছেন৷ তার ফলে এখানে ভিন রাজ্যের কেউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নেই৷

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।