coronavirus
ফাইল ছবি

কলকাতা: শহরে আক্রান্তের সংখ্যাটা ৭১ হাজার ছাড়াল৷ আর মৃতের সংখ্যাটা ছাড়াল দুই হাজার৷ তবে গত ২৪ ঘন্টায় কিছুটা কমেছে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা৷ দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে প্রথম স্থানে উত্তর ২৪ পরগণা৷

মঙ্গববার রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিনের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, একদিনে কলকাতায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ সোমবার সংখ্যাটা ছিল ১৮ জনে৷ সব মিলিয়ে শহরে মোট মৃত্যু হয়েছে ২,০১৯ জনের৷

গত ২৪ ঘন্টায় কলকাতায় আক্রান্ত ৮০৯ জন৷ সোমবারও সংখ্যাটা একই ছিল৷ ফলে এই পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যাটা ৭১ হাজার ছাড়িয়ে গেল৷ তথ্য অনুযায়ী,৭১ হাজার ৪৬২ জন৷ তুলনামূলক শহরে সুস্থতার হার কম৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮০৪ জন৷ আর মোট সংখ্যাটা ৬২ হাজার ১১২ জন৷

শহরে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা কমে ৭,৩৩১ জন৷ সোমবার ছিল ৭,৩৪৩ জন৷ তুলনামূলক ১২ জন কম৷ কলকাতার পরই মোট সংক্রমণ ও মৃতের নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে উত্তর ২৪ পরগণা৷

একদিনে উত্তর ২৪ পরগনায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ সোমবার ছিল ১০ জন৷ তুলনামূলক ফের বাড়ল দৈনিক মৃতের সংখ্যা৷ তবে এই পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যাটা ১,৩৯৭ জন৷

এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় ৮৭১ জন আক্রান্ত হয়েছেন৷ সোমবার ছিল ৮৫৮ জন৷ সব মিলিয়ে উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ৬৬ হাজার ৫০৯ জন৷ অন্যদিকে একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৪০ জন৷ তার ফলে এই পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৭ হাজার ৮৯৩ জন৷ তবে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে ৭ হাজার ২১৯ জন৷

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা ছাড়া উদ্বেগ বাড়াচ্ছে আরও কয়েকটি জেলার সংক্রমণ৷ এগুলো হল -হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হুগলি,দুই মেদিনীপুর ও নদিয়া৷

এদিনের স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, মোট আক্রান্ত যথাক্রমে হাওড়া (২২,৭১৬), দক্ষিণ ২৪ পরগনায়(২১,৮৩৯ ),হুগলি (১৬,১১২), পূর্ব মেদিনীপুর ( ১৩,৪৩০) ও পশ্চিম মেদিনীপুর ১২,৫৬৫ জন৷ নদিয়া ( ১০,১৯২) জন৷ বাকি জেলায় সংক্রমণ ১০ হাজারের নিচে৷

একদিনে যে ৬১ জনের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে কলকাতার ১৭ জন৷ উত্তর ২৪ পরগনার ১৩ জন৷ দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৩ জন৷ হাওড়ার ৬ জন৷ হুগলি ২ জন৷ পশ্চিম মেদিনীপুর ২ জন৷ বাঁকুড়া ১ জন৷ বীরভূম ২ জন৷ নদিয়া ২ জন৷ মুর্শিদাবাদ ২ জন৷ মালদা ১ জন৷ দক্ষিণ দিনাজপুর ২ জন৷ উত্তর দিনাজপুর ২ জন৷ জলপাইগুড়ি ২ জন৷ দার্জিলিং ২ জন৷ কোচবিহার ২ জন৷

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।