স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: নেতাজী সুভাষ আন্তর্জাতিক কলকাতা বিমানবন্দর শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে বলে জানা গিয়েছে৷ ওই সময়কালে কোনও বিমান ওটা নামা করবে না৷ ফণীর জেরে রাজ্যে জারি করা হয়েছে চূড়ান্ত সতর্কতা৷

ফণীর প্রভাবের জেরে কলকাতা বিমানবন্দর বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ ২০ ঘন্টা ৩০ মিনিট বন্ধ থাকবে কলকাতা বিমানবন্দর। ইতিমধ্যে কলকাতা বিমানবন্দরে যাত্রী দুর্ভোগের খবর পাওয়া যাচ্ছে৷ অভিযোগ কলকাতা বিমানবন্দর রন্ধ রাখার খবর কোনও যাত্রীদের জানানো হয়নি৷ আগামিকাল যাদের টিকিট রয়েছে তারা বিমানবন্দরে এসে টিকিট কাউন্টারের সামনে ভিড় জমিয়েছেন৷

যাত্রী গৌতম ব্যানার্জি জানান,” বিমানবন্দরের পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছে৷ ফোন করায় কোনও খবর পাওয়া যাচ্ছেনা৷ সেটাই বড় সমস্যা৷ যাত্রীদের সঙ্গে যোগাযোগ না করলে খুব সমস্যায় পরতে হচ্ছে৷ আমার কাল সকালে হায়দরাবাদে খুব জরুরু কাজ রয়েছে৷ তবে বিমানবন্দর টিকিট সোমবারের দিল৷ তবে কাউন্টারে এসে সহযোগিতা পাওয়া যায়”৷

সকাল থেকেই মেঘে ঢাকা শহরের আকাশ। ফণীর প্রভাব যে ধীরে ধীরে স্পষ্ট হচ্ছে আকাশের অবস্থা তা প্রমাণ দিচ্ছে। শুক্রবার ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে সঙ্গে কয়েক পশলা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাভাবিক নিয়মেই কমেছে পারদ।

শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে রাতের মধ্যে ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। ফনী ঘূর্ণিঝড় এগিয়ে এসেছে। খুব বেশিদূর নেই। তার প্রভাব আজ বিকাল থেকে ধীরে ধীরে বোঝা যাবে।

অন্যদিকে, ওডিশায় প্রাণ নিল ফণী৷ পুরীর কাছেই সাক্ষীগোপালে গাছ পড়ে মৃত্যু হল এক ব্যক্তির৷ গাছ উপড়ে এসে ওই ব্যক্তির ওপর পড়ে বলে খবর৷ ফণীর তাণ্ডবে বিধ্বস্ত ওডিশা৷ পুর্বাভাসের অনেক আগেই ফনী স্থলভাগে আছড়ে পড়ল৷ তবে সেই বিযষয়ে আগেই আশঙ্কা করা হয়েছিল৷ সেই মতো শুক্রবার সকালেই ১৯৫ কিমি বেগে ওড়িশায় আছড়ে পড়ল ফণী। শুরু হয়েছে প্রবল বৃষ্টি। বিধ্বস্ত হয়ে পরেছে জনজীবন।