কলকাতা:  খোদ কলকাতা বিমানবন্দরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে এমনই এক খবরে তীব্র আতঙ্ক তৈরি হয়। যদিও বেলা শেষে স্বস্তির খবর জানাচ্ছে কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। এক জাতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কলকাতায় কারও দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মেলেনি। এই খবরে কিছুটা হলেও আতঙ্ক কেটেছে।

পড়ুন আরও- কলকাতা বিমানবন্দরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত দুই রোগী, হুলস্থুল কাণ্ড

এদিন দুপুরে জাতীয় এক সংবাদসংস্থা জানায়, ব্যাঙ্কক থেকে আসা বিমানের দুই যাত্রীর দেহে নাকি করোনাভাইরাস মিলেছে। আর তাদের এই মুহূর্তে বেলেঘাটা আইডিতে চিকিৎসা চলছে বলেও প্রকাশিত ওই সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়।

ফাইল ছবি

কিন্তু পরবর্তীকালে ওই সংবাদমাধ্যমকে কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, সকালের ওই খবরের কোনও সত্যতা নেই। কলকাতা বিমানবন্দরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কোনও রোগীই শনাক্ত হয়নি। তবে যাই হোক বিমানবন্দরের তরফে দেওয়া বক্তব্যে কিছুটাই আতঙ্ক কেটেছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। এমনকি স্বস্তিও পেয়েছেন সাধারণ মানুষ।

অন্যদিকে, আয়ুষ মন্ত্রকের এক নির্দেশিকায় বলা রয়েছে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক পরে থাকতে হবে। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা খুবই জরুরি। সাধারণ সর্দি জ্বর এই করোনা ভাইরাসের হামলার লক্ষণ। এরকম হলে অতি দ্রুত চিকিৎসক বা বিশেষজ্ঞ অথবা নিকটবর্তী ভাইরাস পরীক্ষা শিবিরে যোগাযোগ করুন। অন্যদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু ) জানিয়ে দিয়েছে সেই আরও ১৮ মাস লাগবে ভয়ঙ্কর করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধকারী টিকা বের করতে। সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় হু সদর দফতর থেকেই জানানো হয়েছে। অযথা ভয় পাবেন না। স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।