নয়াদিল্লি: বিশ্বকাপের ঠিক আগে বিরাটদের চোখ খুলে দিয়েছে বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা! ৩৫৮ রান তুলে ম্যাচ জিততে পারেনি কোহলি অ্যান্ড কোং৷ মোহালিতে চতুর্থ ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে অজিবাহিনী৷ সিরিজ জিতে বিশ্বকাপে নামতে কোটলার দিকেই তাকিয়ে বিরাটবাহিনী৷

অজিদের বিরুদ্ধে চলতি ওয়ান ডে সিরিজই বিরাটদের বিশ্বকাপের মহড়া৷ অর্থাৎ ৫ জুন বিশ্বকাপে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে বুধবার শেষ ওয়ান ডে ম্যাচ খেলতে নামছে ভারত৷ হার মানেই বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের কাছে সিরিজ খুঁইয়ে বিশ্বকাপে নামবে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ কোটলায় স্বাভাবিকভাবেই ব্যাকফুটে থেকে শুরু করবে টিম ইন্ডিয়া৷

আরও পড়ুন: রান তাড়া করে রেকর্ড জয় অস্ট্রেলিয়ার

মোহালিতে ম্যাচ হেরে কোহলি বলেন, ‘দিল্লির ম্যাচ উত্তেজক হয়ে গেল৷ শেষ দু’টি ম্যাচ আমাদের চোখ খুলে দিয়েছে৷ সুতরাং কোনও কিছুই গ্র্যান্টেড নয়৷ সিরিজ জিততে পরের ম্যাচে আমাদের আরও পরিশ্রম করতে হবে এবং প্যাশনের সঙ্গে খেলতে হবে৷’ মোহালিতে ধাওয়ান ধামাকাতেও জয় আসেনি৷ ভারতের ৩৫৮ রান তাডা় করে হাসতে হাসতে ম্যাচ জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া৷

রান তাড়া করতে গিয়ে মাত্র ১২ রানের মধ্যে দুই ব্যাটসম্যানকে হারালেও ১৩ বল বাকি থাকতেই চার উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া৷ ভারতীয় বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলা করেন অজি ব্যাটসম্যানরা৷ ওপেনার উসমান খোওয়াজার ৯১ ও মিডল অর্ডারে হ্যান্ডসকম্বের দুরন্ত সেঞ্চুরি (১১৭) এবং লো-অর্ডারে টার্নার টর্নেডোয় ভারতের আশায় জল ঢেলে দেয়৷ মাত্র ৪৩ বলে ছয় ছক্কা এবং পাঁচটি বাউন্ডারির সাহায্যে ৮৪ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন টর্নার৷

আরও পড়ুন: সচিন-সেহওয়াগকে ছাপিয়ে রেকর্ডবুকে ভারতীয় ক্রিকেটের R-D

এ প্রসঙ্গে ক্যাপ্টেন কোহলি বলেন, ‘পিচ সারা ম্যাচে একই ছিল৷ শেষ দু’টি ম্যাচে আমরা শিশিরের বিষয়টি বুঝে উঠতে পারিনি৷ তাই শেষ দিকে বোলি করা কঠিল ছিল৷ ছেলেরা চেষ্টা করলেও টার্নার দারুণ ইনিংস খেলে ম্যাচ বের করে নেয়৷ ওর ইনিংসটাই ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দেয়৷ এছাড়াও আমরা ম্যাচ জঘন্য ফিল্ডিং করেছি৷’

এর আগে রোহিত-ধাওয়ানের ১৯৩ রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাকফুটে ঠেলে দেয়৷ তবে অল্পের জন্য রোহিত ব্যক্তিগত শতরান হাতছাড়া করেন৷ ৭টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৯২ বলে ৯৫ রান করে আউট হন হিটম্যান৷ ধাওয়ান অবশ্য কোনও ভুল করেননি৷ ১৪৩ রানের মেগা ইনিংস খেলেন গব্বর৷ ১১৫ বলের ইনিংসে ১৮টি বাউন্ডারি ও তিনটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন তিনি৷ ওয়ান ডে কেরিয়ারে এটিই ধাওয়ানের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস৷

আরও পড়ুন: রোহিত-ধাওয়ান ‘এয়ারস্ট্রাইকে’ অজিদের কঠিন টার্গেট ভারতের