নয়াদিল্লি: প্রতিবছরের ন্যায় পৃথিবীর ধনীতম অ্যাথলিটদের তালিকা প্রকাশ করল ফোর্বস ম্যাগাজিন। আর তালিকার প্রথম একশোয় একমাত্র ভারতীয় অ্যাথলিট হিসেবে জায়গা ধরে রাখলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কেরিয়ারে প্রথমবার তালিকার শীর্ষে উঠে এলেন টেনিস মায়েস্ত্রো রজার ফেডেরার। দ্বিতীয় এবং তৃতীয়স্থানে যথাক্রমে গ্রহের দুই সেরা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো এবং লিওনেল মেসি।

এর আগে ২০১৮ এবং ২০১৯-এও ফোর্বসের বিচারে ধনী অ্যাথলিটদের তালিকায় প্রথম একশোয় ছিলেন বিরাট ‘রানমেশিন’ কোহলি। ২০১৮ সালে তালিকায় ৮৩তম স্থানে থাকা বিরাট ২০১৯ তে ১৭ ধাপ পিছলে নেমে যান ১০০তম স্থানে। ৩০ ধাপেরও বেশি উন্নতি করে ২০২০ তালিকায় ৬৬তম স্থানে জায়গা করে নিলেন বিরাট। ব্র্যান্ড এনডোর্সমেন্ট এবং পারিশ্রমিক মিলিয়ে সর্বশেষ আর্থিকবর্ষে ১০৬.৩ মিলিয়ন ডলারের মালিক রজার ফেডেরার প্রথমবারের জন্য তালিকায় উঠে এলেন প্রথম স্থানে। একইসঙ্গে প্রথম টেনিস প্লেয়ার হিসেবে এই কীর্তি গড়লেন তিনি।

ব্র্যান্ড এন্ডোর্সমেন্ট এবং পারিশ্রমিক (পুরস্কার অর্থ) মিলিয়ে যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয়স্থানে থাকা ক্রিশ্চিয়ানো ও লিওর বার্ষিক আয়ের পরিমাণ ১০৫ মিলিয়ন এবং ১০৪ মিলিয়ন ডলার। গতবছরের তুলনায় রোনাল্ডো-মেসির সম্মিলিত আয়ের পরিমাণ এবার কমেছে ২৮ মিলিয়ন ডলার। এই হ্রাসের কারণ অবশ্যই পারিশ্রমিকে কোপ। করোনার জেরে মার্চের মাঝপথ থেকে ইউরোপে বন্ধ ফুটবল সংক্রান্ত সমস্ত অ্যাক্টিভিটি। উপায়ন্তর না দেখে কঠিন সময়ে ফুটবলারদের বেতনে কোপ ফেলতে বাধ্য হয় ক্লাবগুলি।

ব্র্যান্ড এনডোর্সমেন্ট ও পারিশ্রমিক মিলিয়ে ২০১৯-এ ২৫ মিলিয়ন ডলারের অধিকারী ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। সেখানে ২০২০ দুই মিলিয়ে কোহলির আয়ের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে ১ মিলিয়ন ইউরো। যা তাঁকে তালিকায় এগিয়ে দিয়েছে ৩০ ধাপেরও বেশি। ক্রিকেট দুনিয়া থেকে একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে ফোর্বসের ধনীতম অ্যাথলিটের তালিকায় এই নিয়ে টানা পাঁচ বছর বিরাটের উজ্জ্বল উপস্থিতি।

৯৫.৫ মিলিয়ন এবং ৮৮.২ মিলিয়ন ডলার আয় নিয়ে চতুর্থ ও পঞ্চমস্থানে যথাক্রমে পিএসজি তারকা নেইমার ও লস অ্যাঞ্জেলস লেকার তারকা এল জেমস। ৩৭.৪ মিলিয়ন ডলার আয় নিয়ে মেয়েদের মধ্যে তালকায় সবার প্রথমে জাপানি টেনিস তারকা নাওমি ওসাকা।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প