সিডনি: বৃষ্টি থামতেই যবনিকা নামল অস্ট্রেলিয়া ইনিংসে। ভারতের ৬২২ রানের জবাবে সিডনিতে ৩০০ রানে গুটিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস। ছয় উইকেটে ২৩৬ রান নিয়ে খেলা শুরু করে রবিবার দ্বিতীয় সেশনে স্কোরবোর্ডে ৬৪ রান যোগ করে শেষ হয় অজিদের প্রথম ইনিংস। বাকি চার উইকেট তুলে নিতে চতুর্থদিন ২১.১ ওভার খরচ করেন ভারতীয় বোলাররা। ৩২২ রানের বিরাট ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ব্যাগি গ্রিণদের ফলো-অন করতে পাঠান ভারত অধিনায়ক কোহলি। অজিভূমে অভিষেকেই ৫ উইকেট তুলে নেন চায়নাম্যান কুলদীপ যাদব।

তৃতীয়দিন থেকেই তাড়া করছে বৃষ্টি। আশঙ্কা ছিল চতুর্থদিনও। আর আশঙ্কাকে সত্যি করে রবিবার দিনের প্রথম সেশনে সিডনির বাইশ গজে গড়াল না একটি বলও। অস্ট্রেলিয়ার ল্যাজে-গোবরে হওয়া দেখতে যারা চোখ রেখেছিলেন টেলিভিশনের পর্দায়, তাদের হতাশ করল ‘ভিলেন’ বৃষ্টি।

নিজেদের হারের কোনও আশঙ্কা নেই। পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে না পারলেও আটকাবে না ঐতিহাসিক সিরিজ জয়। দরকার শুধুমাত্র ড্র। কিন্তু সিডনি টেস্টের চতুর্থ দিন মর্নিং সেশনে বল না গড়ানোয় দীর্ঘায়িত হয় পেইনদের ফলো-অনের বিষয়টি। একইসঙ্গে অপেক্ষা দীর্ঘায়িত হয় ভারতের ক্রিকেট অনুরাগীদেরও।

বৃষ্টি থামলে দ্বিতীয় সেশনে শুরু হয় খেলা। চতুর্থদিন স্কোরবোর্ডে কোনও রান যোগ হওয়ার আগেই প্যাট কামিন্সকে সাজঘরে ফিরিয়ে দেন মহম্মদ শামি। দলীয় ২৫৮ রানে বুমরাহর ডেলিভারিতে ঠকে যান হ্যান্ডসকম্বও। শূন্য রানে লায়নকে লেগ বিফোর উইকেট করেন কুলদীপ। দশম উইকেটে ৪২ রান যোগ করে যখন জাঁকিয়ে বসছে স্টার্ক-হ্যাজেলউড জুটি, ঠিক তখনই দলীয় ৩০০ রানের মাথায় হ্যাজেলউডকে তুলে নেন অস্ট্রেলিয়ায় মাটিতে অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা কুলদীপ।

সেইসঙ্গে কেরিয়ারে দ্বিতীয়বার পাঁচ উইকেটের নিজের দখলে নেন এই চায়নাম্যান বোলার। ৩২২ রানের বিরাট ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ইনিংস জয়ের সম্ভাবনা ছাড়তে রাজি ছিলেন না কোহলি। তাই মেলবোর্নে না করালেও এসসিজি-তে পেইনের দলকে ফলো-অন করতে পাঠান বারত অধিনায়ক। এই সিডনির বাইশ গজেই শেষবার ১৯৮৬ সালে অস্ট্রেলিয়াকে ফলো-অন করিয়েছিল টিম ইন্ডিয়া। তিন দশক পর কাকতালীয়ভাবে এসসিজি-তে ফের ফলো-অনের আঁধারে ব্যাগি গ্রিনরা।

ফলো-অন করতে নেমে চার ওভারে বিনা উইকেটে অস্ট্রেলিয়ার রান ৬। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে শেষ টেস্ট জিতেই কি ইতিহাস রচনা করবে ভারত? উত্তরটা অনেকটাই স্পষ্ট হতে পারে চতুর্থদিনের শেষে। তবে সিডনির দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া এযাত্রায় কতটা সঙ্গ দেয় টিম ইন্ডিয়াকে, এখন সেটাই দেখার।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব