রাজকোট: ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে করুণ নায়ারের টেস্ট দলে না-থাকা ইস্যুতে সরগরম ক্রিকেটমহল। নায়ার বিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না ভারতীয় ক্রিকেট দলের। মঙ্গলবার নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ এবিষয়ে সাফাই দিলেও সমালোচনার আঁচ এতটুকু নেভেনি। এহেন পরিস্থিতে দলের মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যানটির বাদ পড়া প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

ইংল্যান্ড সফরে টেস্ট সিরিজে পুরো সময়টা অতিরিক্ত হিসেবে রয়ে যাওয়ার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজেও উপেক্ষিত কর্নাটিকের এই ব্যাটসম্যান। বরং ইংরেজদের বিরুদ্ধে পরিবর্ত হিসেবে ডাক পেয়ে সিরিজের শেষ ম্যাচে বাজিমাৎ করেছেন হনুমা বিহারী। এমনকি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্ট দলে বিহারী সুযোগ পেলেও বাদ পড়তে হয় নায়ারকে। এ প্রসঙ্গে কোহলি বলেন, ‘বিতর্কিত বিষয় নিয়ে আমি বিশেষ কিছু বলতে চাই না। তবে এটুকু বলতে পারি কোনও এক জায়গায় বসে সিদ্ধান্তটি গৃহীত হয়নি।’ অর্থাৎ টেস্ট ক্রিকেটে ভারতের হয়ে দ্বিতীয় ত্রিশতরানকারী ব্যাটসম্যানের বাদ পড়ার পিছনে তাঁর কোন হাত নেই বলেই দাবি ভারত অধিনায়কের।

আরও পড়ুন: রাজকোটে পৃথ্বীর হাতে উঠবে ‘টেস্ট ক্যাপ’

মঙ্গলবার জাতীয় নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ সাফাই দেন, ‘তাদের তরফে দু’দফায় নায়ারের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে৷ দেবাং গান্ধী ও একবার তিনি নিজে যোগাযোগ করেন করুণের সঙ্গে৷’ তাঁর আরও সংযোজন, ‘নায়ারকে জানানো হয়েছে কেন তাঁকে বাদ দেওয়া হল এবং দলে ফেরার উপায়ও তাঁকে বাতলে দেওয়া হয়েছে৷’ যদিও ঘটনায় মুষড়ে পড়েছেন নায়ার৷ এ প্রসঙ্গে তাঁর সঙ্গে পরিষ্কারভাবে নির্বাচকরা কোনও কথা বলেননি বলেও জানিয়েছেন করুণ৷ পাশাপাশি তিনি এও বলেন যে, সুযোগের অপেক্ষায় বসে থাকা ছাড়া কোনও উপায়ও নেই তার৷

নায়ারের এই বাদ পড়ার ঘটনা নিছকই নির্বাচকদের সিদ্ধান্ত। সিরিজ শুরুর প্রাক্কালে সাফ জানিয়ে দিলেন ভারত অধিনায়ক। কোহলি আরও জানান, নির্বাচকরা তাঁদের কাজ করেছেন। এবিষয়ে আমি কোনও মন্তব্য করতে চাই না। দল নির্বাচন আমার কাজ নয়। প্রত্যেকে নিজেদের কাজ স্বাধীনভাবে করে চলেছে।’ আরও পরিষ্কার করে কোহলি জানান, ‘সবাই হয়তো মনে করছেন এ বিষয়ে যৌথ সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে। কিন্তু এমন ভাবনা সঠিক নয়। নায়ারের বিষয়ে এক জায়গা থেকে কোনও যৌথ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি।’

আরও পড়ুন: এ কেমন প্রতিবাদ, কোহলির ওয়েবসাইট হ্যাক করল পদ্মাপারের ‘বন্ধু’

নায়ার বিতর্কে কোহলি নিষ্কৃতি পেতে চাইলেও সহজেই মিটছে না ক্ষোভের আগুন। নায়ারের বাদ পড়া প্রসঙ্গে ইতিমধ্যেই সুর চড়িয়েছেন প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটাররা। নায়ারকে টপকে নবাগত হনুমা বিহারীর প্রথম একাদশে ঢুকে পড়ার ঘটনায় সুনীল গাভাস্কর স্পষ্ট জানিয়েছিলেন, ‘নায়ারের সঙ্গে অত্যন্ত অন্যায় করেছে টিম ম্যানেজমেন্ট৷ আমার মনে হয় টিম ম্যানেজমেন্টের ওকে পছন্দ হয়নি৷’

আরও পড়ুন: তিনশো’র নায়কের করুণ কাহিনিতে হতাশ প্রাক্তন নির্বাচক

এদিকে দল নির্বাচনে বিতর্কের আঁচ গায়ে মেখেই বৃহস্পতিবার থেকে রাজকোটে শুরু হছে ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম টেস্ট। দু’ টেস্টের সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ১২ অক্টোবর থেকে হায়দরাবাদে৷ তবে বৃহস্তিবার রাজকোটে টেস্ট অভিষেক হতে চলেছে মুম্বইয়ের প্রতিশ্রুতিময় ব্যাটসম্যান পৃথ্বী শ’র৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।