মুম্বই : অগণিত যুবকের স্বপ্নসুন্দরী সানি লিওনি৷ তাঁকে সামনে পেলে কীভাবে মুগ্ধ করবেন, কী বলবেন, সেলফি তুলবেন কিনা, সেই ভেবেই অস্থির হয়ে যান আপনারা৷ আর ভাবনার কোনও দরকার নেই৷ কারণ সানি নিজেই তাঁকে মুগ্ধ করার উপায় বলে দিচ্ছেন৷ ট্যুইটারে আপলোড করা একটি ভিডিওতে পরিস্কার লিখে বলে দিলেন তাঁর মন জেতার জন্য কী কী জিনিস রিকোয়্যার্ড৷ বলিউডের সেনসেশনাল ক্যুইনকে ইমপ্রেস করতে গেলে সাত সমুদ্র তেরো নদী পেরিয়ে হীরে-মানিক আনতে হবে না৷

শুধু কষ্ট করে আনতে হবে একটা খাবার৷ তা হল ডোনাট৷ তবে যে সে ডোনাট নয়, একটি বিশেষ কোম্পানির ডোনাটেই মন ভরবে সানির৷ এটুকুই আর্জি সানির৷ কথায় বলে স্বামীর মন জিততে গেলে নাকি ভালো খাবার রান্না করে খাওয়াতে হবে, কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে সানিরও তাই৷ সানিরও আনন্দ সেই খাবারেই জড়িয়ে৷ ভিডিওতে তিনি প্রথমদিকে কারও সঙ্গে খাবার শেয়ার করতে চাইছিলেন না তবে পরে ভিডিওতে থাকা আরও দু’জন ব্যক্তির সঙ্গে শেয়ার করার সিদ্ধান্ত নিলেন৷

পড়ুন: নায়িকা বদল, চিড় ধরল সম্পর্কে!

 

সানির এই টোনড বডির মাঝে যে এক ফুডি লুকিয়ে আছে তার প্রমাণ এই ভিডিও৷ প্রসঙ্গত, ‘করেনজিত কৌর: দ্য আনটোল্ড স্টোরি অফ সানি লিওন’-এর প্রথম সিজন সুপারহিট। প্রথম সিজনের শেষ এপিসোড জুড়ে ছিল রহস্য, প্রশ্ন, অজানা তথ্য। সেসব সামনে আসবে সিজন টুয়ের হাত ধরে। ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে সেকেন্ড সিজন। ওয়েব সিরিজটির সিজন টুয়ের আনকাট ট্রেলার মুক্তি পেতেই সমস্ত প্রশ্ন, রহস্যের জট ছাড়ানো শুরু হয়েছে দর্শকদের মধ্যে।

‘হেট হার অর লাভ হার। ইউ জাস্ট কান্ট ইগনোর হার’। এই কথাটা সাধারণত খাটত টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব কিম কার্দাশিয়ানের জন্য। তবে এখন সেটা সানির ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। সানির সম্বন্ধে খারাপ বলুন কিংবা ভালো তাঁকে বা তাঁর খবর এড়িয়ে যাওয়া একেবারে অসম্ভব। সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া আনকাট ট্রেলারটিতে রয়েছে আরও ঘটনার উল্লেখ। সানি এবং ড্যানিয়ালের বিয়ে থেকে শুরু করে সানির মায়ের অ্যাক্সিডেন্ট। মা-বাবার কটূক্তি সত্ত্বেও তাঁদের সঙ্গ কখনও হাতছাড়া হয়নি সানির। জীবনের প্রথম অ্যাডাল্ট ছবিটি শ্যুট করার সময় কেমন ছিল নায়িকার অভিজ্ঞতা? তাও দেখানো হবে এই সিজনে।