কলকাতা: কুকুরছানাকে পিটিয়ে মারার ঘটনায় উত্তাল কলকাতা৷ কাঠগড়ায় দুই নার্সিং পড়ুয়া৷ সঠিক সময়ে কুকুরদের নির্বীজকরণ হয় না৷ খবর দিলেও আসে না পুরকর্মীরা৷ অভিযোগের আঙুল উঠছে কলকাতা পুরনিগমের দিকেও৷ এবার তাই দ্রুত পদক্ষেপের আশ্বাস কলকাতা পুরনিগমের৷ শহরের সব হাসপাতাল চত্বরেই হবে কুকুরদের নির্বীজকরণ ক্যাম্প৷

সরকারি হাসপাতালের নার্সদের অভিযোগ, যত্রতত্র কুকুর ঘুরে বেড়ায়৷ কুকুরের কামড়ে অতিষ্ট নার্সরা৷ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানালেও পদক্ষেপ করানি তারা৷ কর্তৃপক্ষের দাবি খবর দেওয়া হলেও পুরনিগম কুকুরদের ধরে নিয়ে যায় না৷ এই পরিস্থিতিতে হাসপাতাল চত্বর কুকুরমুক্ত করার দাবি জানিয়েছেন নার্সদের সংগঠন৷

এই প্রেক্ষাপটে কী পদক্ষেপ হবে কলকাতা পুরনিগমের? ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ জানান, হাসপাতাল চত্বরকে পুরোপুরি কুকুরমুক্ত করা সম্ভব নয়। তবে কুকুরদের নির্বীজকরণ করা হবে। রাজ্যের সব হাসপাতালে বসবে ক্যাম্প৷ চিঠি দেওয়া হচ্ছে হাসপাতাল সুপারদের৷ তারই অনুমতির অপেক্ষায় পুরনিগম৷

তবে যদি হাসপাতাল চত্বরে কুকুরদের নির্বীজকরণের অনুমতি না মেলে তাহলে পুরনিগম নির্দিষ্ট জায়গায় নিয়ে এসে তা করবে৷ পরে অবশ্য কুকুরগিলিকে সংশ্লিষ্ট জায়গাতেই ছেড়ে দেওয়া হবে৷

হাসপাতালের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় ও অন্যান্য সরকারি দফতরেও ক্যাম্প করার অনুমতি চেয়ে পুরসভা চিঠি দিচ্ছে বলে জানান ডেপুটি মেয়র। এই ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রুখতে, রাজ্যের হাসপাতালগুলিতে কুকুর ধরার খাঁচাও রাখার আবেদন করছেন অতীন ঘোষ৷ কুকুরদের নির্বীজকরণের এই পুর তৎপরতা কয়েকদিন পরেই থেমে যাবে না তো? অশঙ্কায় শহরবাসী৷