স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দেশের বিকৃত ম্যাপ পোস্ট করে বিতর্কে জড়াল কলকাতা পুরসভা। প্রজাতন্ত্র দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়ে ফেসবুক পোস্ট করে পুরসভা।সেই পোস্টে যে ম্যাপ দেখানো হয়, তাতে ছিল না পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর ও চিন অধিকৃত আকসাই চিন। এই বিকৃত ম্যাপ পোস্টের পরই তীব্র বিতর্ক শুরু হয়। বিতর্কের মুখে পোস্টটি সরিয়ে নেয় কলকাতা পুরসভা। মেয়রের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের দাবি তুলেছে বিরোধীরা

দেশের ৭১তম প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে রবিবার সকালে নিজেদের ফেসবুক পেজে একটি শুভেচ্ছাবার্তা পোস্ট করে কলকাতা পুরসভা। মেয়র ফিরহাদ হাকিমের ছবি এবং কলকাতা পুরসভার লোগো সম্বলিত সেই শুভেচ্ছায় লেখা হয়, ‘‘এই প্রজাতন্ত্র দিবস, গাঢ় হোক একতার রঙ!’’ কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছে বিষয়টি নিয়ে।

পাকিস্তান এবং চিন যে মানচিত্র প্রকাশ করে, তাতে ভারতকে ওই ভাবে দেখানো হয়। অর্থাৎ পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে পাকিস্তানের এবং আকসাই চিনকে চিনের অংশ হিসেবে দেখানো হয় ওই সব মানচিত্রে। কিন্তু ভারত কখনও ওই দুই অঞ্চলের উপরে নিজেদের দাবি ছাড়েনি। পাক অধিকৃত কাশ্মীর এবং আকসাই চিন ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলে ভারত সরকার বরাবর দাবি করে এসেছে। ভারতের মানচিত্র থেকে যেন ওই দুই অঞ্চলকে বাদ দিয়ে দেখানো না হয়— এ বার্তা গুগ্‌লকেও দিয়ে রেখেছে নয়াদিল্লি। এত কিছুর পরেও কলকাতা পুরসভার শুভেচ্ছাবার্তায় দেখানো মানচিত্রে ওই দুই অঞ্চল বাদ পড়ায় বড়সড় বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

কী ভাবে ঘটল এই ঘটনা? কে তৈরি করলেন এই শুভেচ্ছাবার্তা?এ বিষয়ে মেয়র ফিরহাদ হাকিমের দাবি, পুরসভা ও তাঁর ভাবমূর্তি নষ্ট করতেই চক্রান্ত করে হ্যাক করা হয়েছে পুরসভার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট। পুর কমিশনারকে এফআইআরের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই কলকাতা পুরসভার ওয়েবসাইট হ্যাক হয়। কেউ হ্যাক করে ২০১০ সালের এনপিআরের তথ্য আপলোড করে দেয়। এদিন এর বিরুদ্ধে প্রথমে নিউ মার্কেট থানা ও পরে লালবাজার সাইবার ক্রাইম বিভাগে অভিযোগ জানানো হয়। মেয়রের দাবি, রাজ্য সরকার ও পুরসভাকে অস্বস্তিতে ফেলতেই এই কাণ্ড ঘটানো হয়েছে।

দেশের বিকৃত ম্যাপ পোস্ট ঘিরে বিধানসভার বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তীর কথায়, ‘‘ফিরহাদ হাকিম একটা গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন। তিনি কলকাতার মেয়র। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেখুন, ভারতের মানচিত্র নিয়ে কী হচ্ছে! তিনি (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) দ্রুত এই ভুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। আমরা তা দেখতে চাই।’’