কলকাতা: আইপিএলের ২০২০ সংস্করণের আসর বসছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে৷ করোনাভাইরাসের কারণে দেশের মাঠিতে এবারের আইপিএল সম্ভব নয় বলে বিদেশের মাটিতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ করার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই৷

করোনা আবহের মধ্যে আইপিএল হবে আইসিসি ও বিসিসিআই-এর শর্ত মেনে৷ এই পরিস্থিতিতেও কমপক্ষে ৫০ জন অনামী ক্রিকেটারের জীবনে আশীর্বাদ হিসেবে নেমে আসতে পারে এই আইপিএল৷ নিজেদের প্রমাণ করতে পারলে আটটি দলের সঙ্গে আমিরশাহীর বিমান ধরতে পারবেন তাঁরাও৷ এক্লুসিভ নেট বোলার হিসেবে মরু শহরে যেতে পারবেন দেশের তরুণ বোলাররা৷

ইতিমধ্যেই আইপিএলের তিনটি ফ্র্যাঞ্চাইজি চেন্নাই সুপার কিংস, কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং দিল্লি ক্যাপিটালস জানিয়েছে যে, তারা নেট বোলারদের একটি রোস্টার প্রস্তুত করছে। এই তালিকায় বেশিরভাগ হলেন প্রথমশ্রেণীর ক্রিকেট খেলা তরুণ বোলার এবং অনূর্ধ্ব-১৯, অনূর্ধ্ব-২৩ রাজ্য স্তরের ক্রিকেটাররা রয়েছেন৷ যাঁরা মহেন্দ্র সিং ধোনি, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা এবং সুরেশ রায়নাদের বোলিং করার সুযোগ পাবেন৷ শুধু তাই নয়, এখানে পারফর্ম করতে পারলে ঘুরে যেতে পারে ভাগ্যের চাকাও৷

শেষ কয়েক বছরে আইপিএলে নেট বোলার হিসেবে দেখা যেত স্থানীয় জুনিয়র স্তরের প্রতিশ্রুতিময় বোলারদের৷ কিন্তু এবার বিদেশের মাটিতে করোনা আবহে জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে আইপিএল হওয়ায় ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি অনুশীলন সেশনে গুণগত মানের বোলারদের ব্যবস্থা করতে চাইছে৷

যদিও বিসিসিআই কোনও দলের সর্বাধিক খেলোয়াড়ের সংখ্যা ২৪ বেঁধে দিয়েছে৷ তবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে আলাদা আলাদা দলীয় ভলিউম নির্দিষ্ট করা হয়নি৷ তবে নিরাপদে ধরে নেওয়া যেতে পারে যে, আট দলের বেশিরভাগই কোনও স্থানীয় নেট বোলারকে কাজে লাগাতে পারবে না।

চেন্নাই সুপার কিংসের সিইও কাশী বিশ্বনাথন মঙ্গলবার পিটিআই-কে জানিয়েছেন, ‘যদি সবকিছু ঠিকঠাক হয়, আমরা অনুশীলনের জন্য প্রায় ১০ জন নেট বোলারকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছি। তারা দলের সঙ্গে টুর্নামেন্ট শুরু হওয়া পর্যন্ত থাকবে৷’

কলকাতা নাইট রাইডার্সও নিশ্চিত করেছে যে, তাদের রোস্টারে ১০ জন নেট বোলারও থাকবে৷ সম্ভবত এঁদের বেছে নেবে মুম্বইয়ের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা কেকেআর অ্যাকাডেমির কোচ অভিষেক নয়ার৷ কেকেআর শিবির সূত্রে জানা গিয়েছে, রঞ্জি ট্রফি যারা ভালো পারফরম্যান্স করা অনূর্ধ্ব-২৩ ও অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় স্তরের টুর্নামেন্ট খেলেছেন এমন বোলারদের নিয়ে যাওয়া হবে৷

দিল্লি ক্যাপিটালস ৬ জন নেট বোলারকে আমিরশাহী উড়িয়ে নিয়ে যেতে চায়৷ ফ্র্যাঞ্চাইজি সুত্রে জানা গিয়েছে, নেট বোলাররা দলের সঙ্গেই আমিরশাহী যাবে এবং প্র্যাকটিস সেশনের সময় দলের সঙ্গে ট্রাভেল করবেন৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও