আবুধাবি: আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণ শুরু হওয়ার আগে ফের একবার সামনে এল কেকেআর-সৌরভ বিতর্ক৷ সম্প্রতি আর কে শো-তে কলকাতা নাইট রাইডার্সের সিইও ভেঙ্কি মাইসোর বলেন ২০১১ মরশুমে আইপিএল অকশনে অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত কঠিন ছিল না৷

২০০৮, ২০০৯ এবং ২০১০ অর্থাৎ আইপিএলের প্রথম তিন মরশুম কেকেআর-এ আইকন প্লেয়ার হিসেবে খেলেছেন সৌরভ৷ এর মধ্যে ২০০৮ ও ২০১০ সালে নাইটদের নেতৃত্বভারও ছিল প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের হাতে৷ প্রথম তিন বছরে যথাক্রমে ষষ্ঠ, অষ্টম এবং ষষ্ঠ স্থানে শেষ করে কেকেআর৷

কেকেআর সিইও মাইসোর বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে এই সিদ্ধান্তটা আমার কাছে বড় মনে হয়নি কারণ আমি এর সঙ্গে যুক্ত ছিলাম না৷ তবে তিন বছর বা এমনকি এক বছর বা দু’বছর এই সংস্থার সঙ্গে যুক্ত থাকলে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা কঠিন হত।’

২০১০ সালের আইপিএলে যোগ দিয়েছিলেন মাইসোর৷ কেকেআরে যোগ দিয়েই স্কোয়াডকে নতুন করে তুলতে শুরু করেছিলেন। ২০১১ সালে আইপিএল নিলামে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বদলি হিসেবে গৌতম গম্ভীরকে কেনে কেকেআর৷ নেতৃত্বের ভারও দেওয়া হয়েছিল দিল্লির এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যানের উপর। গম্ভীরের নেতৃত্বে কেকেআর ২০১২ এবং ২০১৪ সালে দু’বার আইপিএল শিরোপা জিতে৷

মাইসোর বলেন, ‘এটি এমন ছিল যে, কেউ বাইরে থেকে পুরোপুরি এসেছিল৷ আমি আক্ষরিকভাবে বাইরে থেকে এসেছিলাম। ঘটনাচক্রে আমি বুঝেছিলাম, সংস্থা এবং মালিকদের জন্য, বিশেষত এটা কঠিন ছিল। এটি এমন সিদ্ধান্ত ছিল যা আমি প্রস্তাব দিয়েছিলাম এমন কাউকে যাকে আদেশ দেওয়া হয়েছিল।’

কেকেআর-এর সিদ্ধান্তের ফলে ভক্তদের বিরাগভাজন হয়েছিল নাইটরা৷ তবুও দলের মালিকরা এবং ম্যানেজমেন্ট তাঁর সিদ্ধান্তকে পুরোপুরি সমর্থন করেছিল বলেও জানান মাইসোর৷ তিনি বলেন, ‘আমি এটির দিকে ফিরে তাকাব৷ আমি মূলত বলেছিলাম, আমি জানি না এটি ঠিক জিনিস ছিল কিনা৷’

তিনি আরও বলন, ‘আমি যদি দলের সাফল্যের পেছনে কোনও অবদান রেখে থাকি, তাহলে সিদ্ধান্তগুলি নেওয়ার ক্ষেত্রে মালিকরা যেমন শাহরুখ, জয়, জুহি (ফ্র্যাঞ্চাইজি সহ-মালিক জয় মেহতা এবং জুহি চাওলা) পুরোপুরি আমার পাশে ছিল৷ আমি কোন মারভিক একা-রেঞ্জার নই, যে ছুটে এসে নিজের কাজটি করতে চান। তবে একই সঙ্গে, আমার পুরো কেরিয়ারে, আমাকে পরিচালনার স্বায়ত্তশাসন দেওয়া এবং একই সঙ্গে জবাবদিহি করতে অভ্যস্ত ছিল।’

২০২০ আইপিএল খেলতে বৃহস্পতিবারই সংযুক্ত আমিরশাহী পৌঁছে গিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স৷ টুর্নামেন্ট শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর৷ ফাইনাল ১০ নভেম্বর৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।