স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: ছাপ্পা ভোট ও রিগিংয়ে বামেদের ছাপিয়ে গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। বামেরা যে কায়দায় দীর্ঘ ৩৪ বছর ক্ষমতায় টিকে ছিল, সেই কায়দায় এখন তৃণমূল কংগ্রেস ভোট করে বুথ দখল করে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিচ্ছে। তবে এসব ২০১৯-এর ভোটে চলবে না। এই ভাষাতেই তৃণমূল কংগ্রেসকে কটাক্ষ করলেন বিদায়ী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরন রিজিজু৷

উত্তর ২৪ পরগণার বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংয়ের সমর্থনে হুড খোলা গাড়িতে প্রচারে আসেন বিদায়ী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরন রিজিজু৷ তিনি বলেন, তৃণমূলের গুন্ডাগিরি বিজেপি কর্মীরা এবার রুখে দেবে। এবার বাংলায় বিজেপি আশাতীত ভালো ফল করবে। বিজেপিকে মানুষ আপন করে নিয়েছে। ভোট কেন্দ্রে সেই গণতান্ত্রিক অধিকার মানুষ প্রতিফলিত করবে।

বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কিরন রিজুজু সাংবাদিকদের আরও বলেন, ‘‘পূর্ণ শক্তি নিয়ে ফের ক্ষমতায় আসতে চলেছে মোদী সরকার। দেশকে আরও উন্নয়ন ও বিকাশের স্বার্থে মানুষ মোদী সরকারই বেছে নেবে। অবৈধ অনুপ্রবেশকারী ইস্যুতে আমাদের সরকার আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। অসমে এনআরসি-র ভুল ব্যাখ্যা করে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করা হয়েছে। দেশে স্থায়ী সরকার গঠন করতে পারবে একমাত্র ভারতীয় জনতা পার্টি। মানুষ বিজেপির সঙ্গে ছিল আগামী দিনেও থাকবে। আগামী ২৩ মে বিরোধীদের খুঁজতে হবে।’’

দেশের বিদায়ী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরন রিজুজু ব্যারাকপুরের শিউলি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংকে সঙ্গে নিয়ে বিশাল মিছিল করে। এই মিছিলে প্রার্থী অর্জুন সিংয়ের সঙ্গে অংশ নিয়েছিল বারাকপুরের বিজেপি নেত্রী ফাল্গুনী পাত্র সহ কয়েকশ বিজেপি কর্মী ও সমর্থকরা। মিছিলে অংশ নিয়ে প্রার্থী অর্জুন সিং বলেন,‘‘যত দিন যাচ্ছে ততই শক্তি বৃদ্ধি হচ্ছে বিজেপির। বারাকপুরে বিজেপির জয় সময়ের অপেক্ষা। তৃণমূল এখানে তিন নম্বরে থাকবে।’’