চন্ডীগড়: প্রথম পর্বে হারের বদলা নেওয়া হল না রাজস্থানের। উলটে ফিরতি পর্বেও রাহানেদের হারিয়ে আইপিএলে প্রথম চারে উঠে এল কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। মঙ্গলবার মোহালিতে রাজস্থান রয়্যালসকে ১২ রানে হারিয়ে চলতি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের পঞ্চম জয় তুলে নিল অশ্বিনের দল। কিংস ইলেভেনের ১৮২ রানের জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৭০ রানে শেষ করল রয়্যালস। কাজে এল না রাহুল ত্রিপাঠীর অর্ধশতরান কিংবা শেষবেলায় বিনির দুর্দান্ত ‘ক্যামিও’।

প্রথম পর্বে  বাটলারকে করা অশ্বিনের ‘মানকড়’ রান-আউট বিতর্কের রেশ গায়ে মেখেই অ্যাওয়ে ম্যাচে এদিন টস জিতে অশ্বিনদের ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান রাজস্থান দলনায়ক রাহানে। ওপেনার কেএল রাহুলের অর্ধশতরান, ডেভিড মিলারের ঝোড়ো ব্যাটিং পঞ্জাবকে এদিন বড় রান গড়তে সাহায্য করে।

ভালো শুরু করেও আর্চারের ডেলিভারিতে ৩০ রানে ডাগ-আউটে ফেরেন গেইল। এরপর ১২ বলে দুরন্ত ২৬ রান করে আউট হন ময়াঙ্ক আগরওয়াল। তৃতীয় উইকেটে লোকেশ রাহুল-ডেভিড মিলারের ৮৫ রানের জুটি কিংস ইলেভেনকে বড় রানের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়।

মিলারকে সঙ্গে নিয়ে টুর্নামেন্টের তৃতীয় অর্ধশতরানটি পূর্ণ করেন রাহুল। তাঁর ৪৭ বলে ৫২ রানের ইনিংসে ছিল ৩টি চার ও ২টি ছয়। একইসঙ্গে পঞ্জাব ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে এদিন ২৩ ইনিংসে ১০০০ রান পূর্ণ করেন এই ওপেনার। পাশাপাশি ২টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে মিলারের ২৭ বলে ৪০ রান পঞ্জাব ইনিংসকে বড় রানের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়। শেষদিকে অধিনায়ক অশ্বিনের ৪ বলে ১৭ রানের দুর্ধর্ষ ‘ক্যামিও’ দলের রানকে পৌঁছে দেয় ৬ উইকেটে ১৮২-তে। রাজস্থানের হয়ে বল হাতে সবচেয়ে সফল জোফ্রা আর্চার ১৫ রানের বিনিময়ে তুলে নেন ৩টি উইকেট।

জবাবে লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে রাজস্থানের প্রথম সারির ব্যাটসম্যানরা শুরুটা ভালো করলেও রাহুল ত্রিপাঠী ছাড়া দীর্ঘস্থায়ী হতে পারেননি কেউই। বল হাতে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন পঞ্জাব অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন। কৃপণ বোলিংয়ের পাশাপাশি তুলে নেন গুরুত্বপূর্ণ ২টি উইকেট। বল হাতে সফল মুরগান অশ্বিনও। ২টি উইকেট নিলেও রান বেশি খরচ করেন শামি।

ওপেনার রাহুল ত্রিপাঠী অর্ধশতরান করলেও তাঁর সঙ্গে জুটি বেঁধে বড় পার্টনারশিপ গড়তে ব্যর্থ হন বাটলার, স্যামসন কিংবা অধিনায়ক রাহানে। অভিষেকে প্রথম বলেই টার্নারকে ফেরান রবি অশ্বিন। অর্ধশতরান পূর্ণ করে ৪৫ বলে ৫০ করে আউট হন ত্রিপাঠী। বাটলার ফেরেন ২৩ রানে। স্যামসন করেন ২৭, রাহানে আউট হন ২৬ রানে। বোলারদের নিয়ন্ত্রণে ম্যাচ কখনোই বেরোয়নি পঞ্জাবের হাত থেকে।

তবু শেষদিকে এসে ১১ বলে ৩৩ রানের মারকাটারি ‘ক্যামিও’ খেলে ম্যাচ দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন দলে ফেরা স্টুয়ার্ট বিনি। কিন্তু ১২ রান অদূরেই থমকে যেতে হয় রাজস্থানকে। ৪ বলে ১৭ রানের পর ২ উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা পঙ্কাব দলনায়ক অশ্বিন। নবম ম্যাচে পঞ্চম জয় তুলে নিয়ে লিগ টেবিলে চারে পৌঁছে গেল পঞ্জাব। অন্যদিকে অষ্টম ম্যাচে ষষ্ঠ হারে লিগ টেবিলে আরও কোণঠাসা হয়ে পড়ল রাহানের দল।