ওয়াশিংটন:  সমস্ত নিষেধাজ্ঞা উড়িয়ে একের পর এক মিসাইলের পরীক্ষা করে যাচ্ছে উত্তর কোরিয়া। আগামিদিনে আরও অত্যাধুনিক মিসাইল পরীক্ষার ইঙ্গিত ইতিমধ্যে দিয়েছেন রাষ্ট্রপ্রধান কিম জং উন। নতুন করে উত্তর কোরিয়ার একের পর এক মিসাইল পরীক্ষায় ক্রমশ আতঙ্কের মেঘ তৈরি হচ্ছে গোটা বিশ্বে। আর এই অবস্থায় চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করলেন আমেরিকার প্রাক্তন প্রতিরক্ষাসচিব রবার্ট গেটস। তাঁর দাবি, উত্তর কোরিয়া তার সমস্ত পরমাণু অস্ত্র ত্যাগ করার মার্কিন দাবি কখনই মেনে নেবে না।

পরমাণু ইস্যুতে ওয়াশিংটন এবং পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে আলোচনা যখন অচলাবস্থার মুখে পড়েছে তখন মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রবার্ট গেটস এমনই গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য করেন। আর তাঁর এই মন্তব্যে নতুন করে আতঙ্কের কালো মেঘ দেখছেন সামরিক পর্যবেক্ষকরা।

পেন্টাগনের প্রাক্তন প্রধান গেটস বলেন, আমি বিশ্বাস করি যে উত্তর কোরিয়া কখনই পুরোপুরিভাবে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করবে না। পিয়ংইয়ংকে পুরোপুরি নিরস্ত্রীকরণ করতে পারবে বলে ট্রাম্প প্রশাসন যে বিশ্বাস করছে তা অবাস্তব বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তাঁর দাবি, উত্তর কোরিয়ার নতুন ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে আমেরিকা এবং তার মিত্র দেশগুলো উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। এসব ক্ষেপণাস্ত্র রাশিয়ার পরমাণুবাহী ক্ষেপণাস্ত্রের অনুরূপ বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। গত ফেব্রুয়ারিতে পরমাণু ইস্যুতে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে শীর্ষ বৈঠক থেকে বের হয়ে যাওয়ার বিষয়ে ট্রাম্প যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তা সঠিক ছিল বলে জোর দেন গেটস। উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে ২৫ বছরের ব্যর্থ আলোচনার পর দেশটির ব্যাপারে নেয়া ট্রাম্পের পদক্ষেপ সাহসী ছিল বলে মনে করেন তিনি।