নয়াদিল্লি: হিংসার ঘটনা অরুণাচলে৷ দুষ্কৃতী হামলায় নিহত ন্যাশনাল পিপল’স পার্টির তিরঙ আবহ এবং তাঁর পুত্র-সহ ১১ জন৷ এই হামলার কড়া নিন্দা করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং৷ উত্তর পূর্বে অশান্তির লক্ষ্যেই এই হামলা বলে দাবি করেছেন তিনি৷

এদিন রাজনাথ ট্যুইটে তাঁর অসন্তোষের কথা জানান৷ সঙ্গে ছিল অপরাধীদের খুঁজে বার করে শাস্তির কড়া বার্তা৷ তিনি লেখেন, ‘ আমি হতচকিত, একই সঙ্গে আমার রাগ হচ্ছে৷ এই হামলা দেশের উত্তর পূর্বে অশান্তি ও অস্থিরতা তৈরির জন্যই করা হয়েছে৷ েই ঘরণের হামলা ও অপরাধীদের রেয়াত করা হবে না৷ নিহতদের পরিবারবর্গকে সমবেদনা জানাই৷’’

আরও পড়ুন: পাকিস্তানিদের জন্যে ভিসা বন্ধ করল ঢাকা, জবাব দিল বাংলাদেশ সরকার

মঙ্গলবার অরুণাচল প্রদেশের ন্যাশনাল পিপল’স পার্টির তিরঙ আবহ এবং তাঁর পুত্র-সহ ১১ জনকে গুলি করে হত্যা করল দুষ্কৃতীরা। তিরাপ জেলার বোগাপানি এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। কোনও সংগঠন এই হামলার দায় স্বীকারনা করলেও পুলিশের অনুমান, ন্যাশনাল সোসালিস্ট কাউন্সিল অব ন্যাগাল্যান্ড এই ঘটনার পিছনে রয়েছে৷

লোকসভা এবং বিধানসভা একসঙ্গে নির্বাচন হয় অরুণাচল প্রদেশে। ন্যাশনাল পিপল’স পার্টির নেতা তিরঙ আবহ খোঁসা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের বিদায়ী সাংসদ। বিধানসভা ভোটের পুনর্নিবাচনের দাবি জানিয়েছিলেন তিরঙ আবহ। কী কারণে এই হত্যা তা এখনই বুঝতে পারছে না পুলিশ৷

এই মর্মান্তিক ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী করনাদ সাঙ্গমা। টুঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন প্রধানমন্ত্রী৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজুও দুঃখপ্রকাশ করে দোষীদের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।