ঢাকা: আর্থিক দুর্নীতির মামলায় জেলবন্দি বাংলাদেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সম্পর্কে সম্প্রতি রটে যায় তিনি গুরুতর অসুস্থ এবং আশঙ্কাজনক৷ সেই খবর অস্বীকার করা হল৷ চিকিৎসাধীন বেগম জিয়া নিয়ম করে রোজা রাখছেন বলেই জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ যদিও বিএনপি নেতারা বারবার দাবি করেছেন দলনেত্রী গুরুতর অসুস্থ৷

বিএনপি শীর্ষ নেত্রী খালেদা জিয়া আগের তুলনায় ভালো আছেন। ঈদের আগে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা এবং সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে এমনই তথ্য দিয়েছেন বুধবার বিএসএমএমইউ পরিচালক (হাসপাতাল) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল হক৷ তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার ডায়াবেটিস এখন নিয়ন্ত্রণে। তিনি ইনসুলিন নিচ্ছেন এবং ডায়াবেটিসের ওষুধ খাচ্ছেন। আর্থ্রাইটিসের ব্যথাও অনেক কমে গেছে। শারীরিক যে দুর্বলতা ছিল, তারও উন্নতি হয়েছে। খালেদা জিয়ার মুখের ফাঙ্গাল ইনফেকশনও প্রায় ৯০ শতাংশ সেরে গেছে। নতুন করে তিনি কোনও সমস্যার কথা বলেননি। খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে কিছু সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর সঠিক নয় জানান তিনি

দুর্নীতির মামলায় কারাবন্দি খালেদা জিয়া৷ বন্দি অবস্থায় বর্ষীয়ান এই নেত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েন৷ তিনি হাঁটতেও পারছিলেন না৷ গত ১ এপ্রিল থেকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আপাতত তিনি সুস্থতার পথে৷ খালেদা জিয়া রোজা রাখছেন। ছোলাসহ ইফতারের অন্যান্য আইটেমও খাচ্ছেন। তার সঙ্গে থাকা ফাতেমা ইফতারের আইটেম রান্না করে দেয়। তার কেবিনের পাশেই ছোট একটা রান্নাঘর আছে।

খালেদা জিয়ার জন্য চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্যদের সঙ্গে সানন্দে, হাস্যোজ্জ্বল মুখে আমাদের সঙ্গে কথা বলেছেন বলেই জানা গিয়েছে। তিনি যখন মনে করবেন তিনি সুস্থ, হাসপাতাল থেকে চলে যেতে চাইবেন, তখন তাকে রিলিজ করা হবে। আমরা সেই পর্যন্তই তাকে সেবা দিয়ে যাব।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব