কলকাতাঃ  আগামী মাস জুলাইয়েই পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর পাঁচবছরের কার্যকালের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। শুধু বাংলাই নয়, আগামী কয়েকমাসের মধ্যেই ১২টি রাজ্যের রাজ্যপালদের কার্যকালদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। যার মধ্যে অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ বাংলা। কারন আগামী মাসেরই শেষ হচ্ছে কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর কার্যকালের মেয়াদ।

শোনা যাচ্ছে, বর্তমান রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর আর মেয়াদকাল আরও বাড়ানো হবে কিনা তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। তবে নয়া রাজ্যপাল হিসাবে কোনও নতুন মুখকেই সম্ভবত রাজ্যের দায়িত্বে নিয়ে আসা হবে বলে প্রধানমন্ত্রীর দফতর এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে।

শুধু বাংলাতেই নয়, উত্তরপ্রদেশ, ত্রিপুরা, নাগাল্যান্ড এবং গুজরাতের রাজ্যপালের পাঁচ বছর পূর্ণ হবে জুলাইতে। সেখানেও নতুন কোনও মুখ নিয়ে আসা হবে বলে জানা যাচ্ছে। বাংলা এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, আগামী ১৬ জুলাই কার্যকাল শেষ হবে গুজরাতের রাজ্যপাল ওপি কোহলির। তাঁর পরপরই নাগাল্যান্ডের রাজ্যপাল পি বি আচার্য ১৮ জুলাই পাঁচবছর পূর্ণ করবেন। উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল হিসেবে রাম নায়েকের শেষ দিন ২১ জুলাই। অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির কার্যকালের মেয়াদ ২৩ জুলাই পর্যন্ত।

ত্রিপুরার রাজ্যপাল কাপ্টেন সিং সোলাঙ্কির কার্যকাল শেষ হবে ২৬ জুলাই। মূলত মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা সোলাঙ্কি এর আগে হরিয়ানার রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্বভার সামলেছেন। সমস্ত রাজ্যেই রাজ্যপাল হিসাবে নতুন মুখ আনা হবে।

তবে বাংলার ক্ষেত্রে বিশেষ নজর প্রধানমন্ত্রীর দফতর-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক দিতে পারে বলে জানা গিয়েছে। কারণ ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় অশান্তির আগুন এখনও জ্বলছে। রাজ্যের অবস্থার খবর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে রিপোর্ট হিসাবে পাঠাচ্ছেন কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। এই অবস্থায় রাজ্যপালের পাঁচবছরের মেয়াদকাল শেষ হচ্ছে। ফলে কেশরীনাথ ত্রিপাঠীকেই নতুন করে রাজ্যপালের দায়িত্বে রেখে দেওয়া হবে তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। তবে মন্ত্রকের এক সূত্রের মতে, সমস্ত রাজ্যে নতুন মুখ আনার উপরই বেশি নজর দিচ্ছে সরকার। আর সেক্ষেত্রে বাংলাতেও নতুন মুখ হিসাবে কাউকে দেখা যেতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।